প্রচ্ছদ

খাদিজা হত্যাচেষ্টা মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আজ

২৯ নভেম্বর ২০১৬, ০৬:০৫

sylhetsurma.com

স্টাফ রিপোর্টার :
কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস হত্যাচেষ্টার মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি আজ মঙ্গলবার সিলেটের মহানগর মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে অনুষ্ঠিত হবে। শুনানির পরপরই মামলার বিচার কার্য শুরু করতে অভিযোগ গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন মামলার সরকার পক্ষের আইনজীবীরা।
আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, খাদিজার ওপর হামলার পর মামলা হওয়ার এক মাস পাঁচ দিনের মাথায় মহানগর পুলিশের শাহপরান থানার উপপরিদর্শক হারুনুর রশিদ গত ৮ নভেম্বর চার্জশিট (অভিযোগপত্র) আদালতে দাখিল করেন। ১৫ নভেম্বর আদালতে অভিযোপত্রের শুনানি শেষে তা গৃহীত হয়। সিলেট মহানগরের অতিরিক্ত বিচারিক হাকিম উম্মে সরাবন তহুরা এক আদেশে মামলাটি মুখ্য মহানগর বিচারিক হাকিম আদালতে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়ে ২৯ নভেম্বর অভিযোগ গঠনের শুনানির তারিখ ধার্য করেন।
মামলার সরকার পক্ষের প্রধান আইনজীবী সিলেটের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ জানান, আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) মহানগর মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি হবে। পরে আদালতে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করা হবে। ওই দিনই সাক্ষ্য গ্রহণের দিনক্ষণ নির্ধারণ করে বিচার প্রক্রিয়া শুরু হবে।
উল্লেখ্য, গত ৩ অক্টোবর বিকেলে এমসি কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রে বিএ (পাস) পরীক্ষা দিয়ে বের হওয়ার সময় খাদিজাকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন বদরুল। ঘটনার পরপরই জনতা ধাওয়া করে বদরুলকে ধরে পুলিশে দেন। খাদিজাকে সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। সিলেট সদর উপজেলার হাউসা গ্রামে খাদিজার বাড়ি। তার বাবা মাসুক মিয়া সৌদি প্রবাসী। খাদিজাকে বদরুলের কোপানোর ভিডিওচিত্র মুঠোফোনে ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে দেশজুড়ে চাঞ্চল্য দেখা দেয়। বদরুলের দ্রুত বিচারের দাবিতে গত প্রায় এক মাস সিলেটসহ সারা দেশে প্রতিবাদী নানা কর্মসূচি পালিত হয়। অভিযুক্ত বদরুলের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মনিজ্ঞাতি গ্রামে। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী (অনিয়মিত) ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক ছিলেন। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে বদরুলকে। উক্ত মামলার একমাত্র আসামী বদরুল বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন।

  •  
  •