,
output_6836qW

সাঈদীর আমৃত্যু কারাদন্ডের রায় রিভিউ’র আবেদন শুনানির কার্যতালিকায়

সিলেট সুরমা ডেস্ক : জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আমৃত্যু কারাদন্ডের রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আর্জি জানিয়ে আনা আবেদন শুনানির জন্য সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় রয়েছে। আজ মামলাটি আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় শুনানির জন্য ১৪৭ নং ক্রমিকে রয়েছে। আমৃত্যু কারাদন্ডের রায় পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) করে মৃত্যুদন্ডের আর্জি জানিয়ে ২০১৬ সালের ১২ জানুয়ারি রাষ্ট্রপক্ষে আবেদন দায়ের করা হয়। রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে ৩০ পৃষ্ঠার মূল আবেদনের সঙ্গে ৬৫৩ পৃষ্ঠার নথিপত্র দাখিল করে রাষ্ট্রপক্ষ। এডভোকেট অন রেকর্ড সৈয়দ মামুন মাহবুব সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে এ রিভিউ আবেদন দাখিল করেন।
মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষ কোনো আসামির সাজা বাড়ানোর জন্য প্রথম রায় রিভিউ’র আবেদন করে। এর আগে জামায়াতের আরেক নেতা আব্দুল কাদের মোল্লাকে ট্রাইব্যুনালে দেয়া যাবজ্জীবন রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করেছিল। আপিলে কাদের মোল্লার দন্ড বাড়িয়ে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়। আপিলের রায়ের রিভিউ করেছিল আসামিপক্ষ। রিভিউ’তেও দন্ড বহাল রাখে আপিল বিভাগ। পরে সব আইনি প্রক্রিয়া শেষে কাদের মোল্লার মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়।
সাঈদীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়ে আপিল বিভাগের দেয়া পূর্নাঙ্গ রায় ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর প্রকাশ করা হয়। ৬১৪ পৃষ্ঠার এ রায় সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করা হয়। পূর্নাঙ্গ রায় প্রকাশের ১৫ দিনের মধ্যে সংক্ষদ্ধরা রিভিউ দায়েরের সুূযোগ পেয়ে থাকেন। সে অনুযায়ি রাষ্ট্র ও আসামীপক্ষ রায় রিভিউ’র আবেদন দাখিল করে।
গত বছরের ১৭ জানুয়ারি আপিলের রায় থেকে খালাস চেয়ে রিভিউ আবেদন দায়ের করেন সাঈদী। মোট ৯০ পৃষ্ঠার রিভিউ আবেদনে আমৃত্যু কারাদন্ড থেকে খালাস পেতে ১৬টি যুক্তি দেখানো হয়েছে। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ৩০ পৃষ্ঠার মূল আবেদনে মৃত্যুদন্ড আর্জির পক্ষে পাঁচটি যুক্তি দেখানো হয়।
২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর সাঈদীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আমৃত্যু কারাদন্ড দিয়ে আসামি ও রাস্ট্রপক্ষে আনা আপিলের সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করেছিল সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ। তৎকালীন প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে ৫ বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত আপিল বিভাগের বিশেষ বেঞ্চে এ রায় ঘোষনা করা হয়। বেঞ্চের সংখ্যাগরিষ্ঠ বিচারপতিদের মতে আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষের করা দুটি আপিল আংশিক মঞ্জুর করে এ রায় দেয়া হয়। বেঞ্চের অন্য বিচারপতিরা ছিলেন- বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (বর্তমান প্রধান বিচারপতি), বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী। রায় দেয়া বিচারপতিদের স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে পূর্নাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয়।
রায়ে বলা হয়, ১০, ১৬ ও ১৯ নম্বর অভিযোগে সাঈদীকে আমৃত্যু কারাদন্ড দেয়া হয়। সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে ৬, ১১ ও ১৪ নম্বর অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেয়া হয়। একই সঙ্গে ৮ নম্বর অভিযোগের অংশবিশেষে সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে সাঈদীকে খালাস এবং এ অভিযোগের অংশবিশেষে তাকে ১২ বছর কারাদন্ডাদেশ দেয় হয়। এছাড়াও সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে ৭ নম্বর অভিযোগে তাকে ১০ বছর কারাদন্ড দেয়া হয়।
মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীকে মৃত্যুদন্ড দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। সাঈদীর বিরুদ্ধে ২০টি অভিযোগে চার্জ গঠন করেছিল ট্রাইব্যুনাল। এরমধ্যে ৮টি অভিযোগ প্রমাণিত হয় এবং ১২টিতে তাকে খালাস দেয়া হয়। প্রমাণিত ৮টি অভিযোগ হচ্ছে ৬, ৭, ৮, ১০, ১১, ১৪, ১৬ এবং ১৯। এরমধ্যে ৮ এবং ১০ নং অভিযোগে সাঈদীকে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়। এ দুই মধ্যে রয়েছে ইব্রাহিম কুট্রি হত্যা ও বিশাবালী হত্যার অভিযোগ। দুইটি অভিযোগে সর্বোচ্চ সাজা হওয়ায় প্রমানিত অপর ছয় অভিযোগে সাজা প্রয়োজন নেই বলে ট্রাইব্যুনাল রায়ে উল্লেখ করে।
সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত ৮ নম্বর অভিযোগে বলা হয়েছে, ৭১’ সালের ৮ মে বেলা ৩টায় সাঈদীর নেতৃত্বে তার সহযোগীরা পাকিস্তানি বাহিনীর সহায়তায় সদর থানার চিতলিয়া গ্রামের মানিক পসারির বাড়িতে হানা দিয়ে তার ভাই মফিজ উদ্দিন পসারী এবং ইব্রাহিম কুট্রিকেসহ দুই ব্যক্তিকে ধরে নিয়ে যায়। সেখানে পাঁচটি বাড়িতে কেরোসিন ঢেলে অগ্নিসংযোগ করা হয়। পরে পাড়েরহাট সেনা ক্যাম্পে নেয়ার পথে সাঈদীর প্ররোচণায় ইব্রাহিম কুট্রিকে হত্যা করে লাশ স্থানীয় একটি ব্রিজের কাছে ফেলে দেয়া হয়। মফিজ পসারীকে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে নির্যাতন করা হয়।
অভিযোগ-১০ এ বলা হয়েছে, ৭১’ এর ২ জুন সকাল ১০টার দিকে সাঈদীর নেতৃত্বে তার সশস্ত্র সহযোগীরা ইন্দুরকানি থানার উমেদপুর গ্রামের হিন্দুপাড়ার হানা দিয়ে ২৫টি ঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এসব বাড়ির মালিকেরা হলেন- চিত্তরঞ্জন তালুকদার, হরেণ ঠাকুর, অনিল মন্ডল, বিশাবালী, সুকাবালি, সতিশ বালা প্রমুখ। সাঈদীর ইন্ধনে তার সহযোগীরা বিশাবালীকে তার বাড়ীর নারকেল গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন ও গুলি করে হত্যা করে।
এ রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ২৮ মার্চ সাঈদী ও রাষ্ট্রপক্ষ পৃথক দু’টি আপিল দাখিল করে। যে সব অভিযোগ থেকে সাঈদীকে খালাস দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল সে অভিযোগগুলোতে আপিলে দন্ডের আর্জি জানায় রাষ্ট্রপক্ষ।



সংবাদটি 39 বার পঠিত
এ সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

শিরোনাম

আর্কাইভ

এপ্রিল ২০১৭
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মার্চ    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
............................................................................................................. logo copy
12-4-300x214
সম্পাদক ও প্রকাশক মো. নাজমুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদক : আমিনুল ইসলাম রোকন
সিলেট সুরমা মিডিয়া কর্পোরেশনের পক্ষে শহিদ আহমদ চৌধুরী সাজু কর্তৃক মুদ্রিত ও
সিটি সেন্টার (১০ম তলা),জিন্দাবাজার,
সিলেট থেকে প্রকাশিত।
ফোন : ০৮২১-৭১১০৬৯,
মোবাইল : (নির্বাহী সম্পাদক-০১৭১৫-৭৫৬৭১০ )
০১৬১১-৪০৫০০১-২(বার্তা),
০১৬১১-৪০৫০০৩(বিজ্ঞাপন), ইমেইল : www.sylhetsurma2011@gmail.com
ওয়েব : www.sylhetsurma.com
শিরোনাম :
১১ মে পবিত্র শবে বরাত ৬০ লাখ টাকার বিদেশী সিগারেট আটক পালিয়েছিল সেই তরুণী ! কারামুক্ত অলিউরের সাথে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ছাত্রদল নেতৃবৃন্দের স্বাক্ষাত সাজাইয়ের মুক্তির দাবিতে কুচাইয়ে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নব-নির্বাচিত আবুল কালামকে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রদলের সংবর্ধনা প্রদান ‘জান্নাতুল ফাহিম’ স্মৃতি সংসদ সিলেট’র কমিটি গঠন মাধবপুরে ব্রীজ ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ চরমে ভোলাগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযানে ৩৪টি বোমা মেশিন ধ্বংস মালনিছড়া চা বাগানে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে (সাময়িক বরখাস্ত) পুলিশ আটক খুব শিগগির বাংলাদেশে পেপলের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে জঙ্গিবাদ দমন ও মাদক নির্মূলে সর্বাত্মক ব্যবস্থা নেয়া হবে : আইজিপি ছাত্রদল নেতা সাজাইকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে তাৎক্ষনিক মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত সিরিয়ার সামরিক শিবিরে ইসরাইলের হামলায় হতাহত ৫ সকল শিশুর শিক্ষা সহায়তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর আহবান গ্রামবাসীর পিটুনিতে ডাকাত নিহত, ডাকাতের হামলায় আহত ৪ হাওরে মরেছে ৫০ টন মাছ, কোটি টাকার ক্ষতি বড়লেখায় বৈদ্যুতিক তার চোর চক্রের ২ সদস্য আটক এমসি কলেজ ছাত্রাবাস থেকে শিবির সন্দেহে তিনজনকে পুলিশে দিলো ছাত্রলীগ জগন্নাথপুরের যুবককে ঢাকায় নিয়ে চাকুরির প্রলোভনে মুক্তিপণ দাবি মালয়েশিয়ায় ভূমিধ্বসে দুই বাংলাদেশি শ্রমিকের মৃত্যু চুনারুঘাটে ৩ নারী পাচারকারী আটক, ১ নারী উদ্ধার চুয়াডাঙ্গায় বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা এরশাদের বোনের মেয়েকে বিয়ে করলেন বাবলু দেশের মানুষ জঙ্গীদের বিরুদ্ধে ঘুরে দাঁড়িয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী খুলনায় মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় গ্রেপ্তার ৯ বেহালদশা ! চলে গেলেন কিংবদন্তি শিল্পী লাকী আখন্দ গোলাপগঞ্জে কীটনাশক পানে গৃহবধূর আত্মহত্যা একাধিক ডাকাতি ও অস্ত্র মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার সিলেটে চোরাই মালামালসহ আটক ২ ধ্বংস করা হবে মার্কিন নগর তার ভিডিও দেখালো উত্তর কোরিয়া গোবিন্দগঞ্জ ব্রিজ এলাকায় বাস চাপায় খোজারখলা মসজিদের ইমাম নিহত ছাতকে গলায় ফাঁস দেয়া এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার পৃথক সংঘর্ষে চেয়ারম্যানসহ আহত ৫৫ শাহীন গ্রেফতার সিলেটে বজ্রপাতে শিশুসহ ২ জনের মৃত্যু, আহত ২ নগরীর শাহী ঈদগাহে দুই পক্ষের সংঘর্ষ : আহত ৩ ধৈর্য্য ধরো মা,আমি আপনার ফাহিম : এস এম জাকির হোসেন সুরমা মার্কেট থেকে ২ জালিয়াত আটক, জাল পাসপোর্ট ও ড্রাইভিং লাইসেন্স উদ্ধার মাধবপুরে আসল পুলিশের হাতে ‘ভুয়া পুলিশ’ আটক শফিক চৌধুরীর গাড়িতে হামলা : আবু সরকারসহ ৮ জন ৩ দিনের রিমান্ডে গোটাটিকর থেকে ৩ নারী পাচারকারী আটক, ২ নারী উদ্ধার প্রবাসে গমন উপলক্ষে তরুন সংগঠক শিপলুকে সংবর্ধনা প্রদান জঙ্গি দেলোয়ার হোসেন রিপনের ফাঁসি কার্যকর বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ উদযাপন উপলক্ষে সরকারি কর্মসূচি শাবিপ্রবিতে ছাত্রী নিপীড়ন : ছাত্রলীগ সভাপতিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা জাতিসংঘের সর্বকনিষ্ঠ শান্তিরদূত মালালা ইউসুফজাই সিলেটে ড্রেন খনন করতে গিয়ে পাওয়া গেল ১১টি মর্টার শেল প্রস্তুতি সম্পন্ন : প্রস্তুত ১০ জল্লাদ