,





আশিকের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা : ২৫ নং ওয়ার্ডকে আধুনিক ওয়ার্ডে রূপান্তর করতে চান তিনি

সিলেট সুরমা ডেস্ক :
সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী, সাবেক কাউন্সিলর আশিক আহমদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনী আপীল কর্তৃপক্ষ, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ড. নাজমুনারা খানুম বৃহষ্পতিবার শুনানী শেষে কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদের মনোনয়নপত্রটি বৈধ ঘোষণা করেন। ফলে, আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদের প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে আর কোন বাধা নেই। গত ২ জুলাই সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র বাছাইকালে ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদের মনোনয়ন পত্রের সাথে দাখিল করা এফিডেভিটকৃত হলফনামার শেষাংশে স্বাক্ষর না থাকায় মনোনয়নপত্রটি সাময়িক বাতিল করেন রিটার্নিং অফিসার। কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদ রিটার্নিং অফিসারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনী আপীল কর্তৃপক্ষ ও সিলেটের বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপীল দায়ের করেন। বৃহষ্পতিবার সকালে আশিক আহমদের আপীল আবেদনটি শুনানী শেষে তার মনোনয়নপত্রটি বৈধ বলে সিদ্ধান্ত প্রদান করেন বিভাগীয় কমিশনার। ফলে, বর্তমানে ২৫ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদের নির্বাচনে অংশগ্রহণে আর কোন বাধা নেই। নির্বাচনী আপীল বোর্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদের পক্ষে শুনানীতে অংশ নেন সিলেট জেলা বারের সিনিয়র এডভোকেট সৈয়দ মহসিন আহমদ ও এডভোকেট মোহাম্মদ তাজ উদ্দিন। অপরদিকে কাউন্সিলর প্রার্থী আশিক আহমদ বলেন, ২০০৩ সালে তিনি প্রথম ২৫ নং ওয়ার্ডের কমিশনার হিসেবে জয়লাভ করেন। পরে ২০০৮ ইং সালে পূনরায় তিনি কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হন। মোমিনখলা এলাকায় জন্মগ্রহনকারী আশিক আহমদ বলেন, তিনি কমিশনার ও কাউন্সিলর হিসেবে ১০ বছর জনপ্রতিনিধি থাকাকালীন সময়ে সিলেট ফরেন পোস্ট অফিস থেকে বাইপাস পর্যন্ত সড়ক সংস্কার ও নির্মাণ কাজ করেন, রতœার খাল খনন ও রতœার খালের পাশ দিয়ে ড্রেন নির্মাণসহ ওয়ার্ডের শতাধিক কাচা সড়ক পাকাকরণের কাজ সম্পন্ন করেছিলেন। এ ছাড়া তিনি মসজিদ, মাদ্রাাসা, স্কুল কলেজে অনুদান প্রদান, এলাকায় বয়স্কভাতাসহ সরকারী বিভিন্ন ভাতা সঠিকভাবে বন্ঠন করেছিলেন। তিনি বলেন, কাজিরখলা, গাঙু, খোজারখলা, দক্ষিণ ভার্থখলা, বারোখলা, কায়স্থরাইল, মুছারগাঁও, দাউদপুর ও মোমিনখলা এলাকার ভেতরে বিগত পাঁচ বছরে উল্লেখযোগ্য কোনো পরিকল্পিত উন্নয়ন হয়নি। চলাচলের রাস্তাগুলোর খারাপ অবস্থা বিরাজ করছে। মুছারগাঁও থেকে মোমিনখলা পর্যন্ত রাস্তার উপরে সব সময় হাটু পানি বিদ্যমান থাকে। ২৫ নং ওয়ার্ডের রেলওয়ে এলাকার ভেতরে আগে এক জায়গায় অপরাধের আস্তানা ছিল, বর্তমানে তা ছড়িয়ে পড়েছে ২৫ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন পাড়া ও মহল্লায়। ইয়াবা,হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের উৎপাতে অতিষ্ঠ এলাকার সাধারণ মানুষ। বেড়েছে অপরাধের হার। আশিক আহমদ আরো বলেন, সবার ভালবাসা ও দোয়ায় তিনি যদি কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হন, তাহলে ৯ টি পাড়ার মুরব্বী যুবক ও তরুনসহ ছোট বড় সকলের মতামতের উপর ভিক্তি করে পরিকল্পিত উন্নয়নমুলক কাজের মাধ্যমে ২৫ নং ওয়ার্ডকে নাগরিক সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন আধুনিক ওয়ার্ডে রূপান্তর করতে চান।

এ সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •   
  •   
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    11
    Shares

Leave a Reply


সম্পাদক ও প্রকাশক মো. নাজমুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদক : আমিনুল ইসলাম রোকন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : আর কে চৌধুরী
সিলেট থেকে প্রকাশিত।
ফোন : ০৮২১-৭১১০৬৯,
মোবাইল : (নির্বাহী সম্পাদক-০১৭১৫-৭৫৬৭১০ )
০১৬১১-৪০৫০০১-২(বার্তা),
০১৬১১-৪০৫০০৩(বিজ্ঞাপন), ইমেইল : www.sylhetsurma2011@gmail.com
ওয়েব : www.sylhetsurma.com