প্রচ্ছদ

বানিয়াচংয়ে ৩ সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

২০ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:৫০

sylhetsurma.com
আত্মহত্যা

সিলেট সুরমা ডেস্ক : বানিয়াচংয়ে সরলা বেগম (৩৮) নামের ৩ সন্তানের জননী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। রোববার (২০জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে তিনটায় বানিয়াচং উপজেলা সদরের ৩নং ইউনিয়নের অন্তর্গত বানেশ্বর বিশ্বাসের পাড়া (মোদক বাড়ি) ভাড়াটিয়া ঘরে তীরের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। নিহত সরলা বেগম সাগর দীঘির পূর্ব পাড়ের সজলু মিয়ার কন্যা।

জানা যায়, সরলা বেগম তার স্বামী সুদিন আলীকে নিয়ে বানেশ্বর বিশ্বাসের পাড়া স্বপন মোদকের বাড়িতে একটি ঘর ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছিল। ঘটনার দিন ঘরের লোকজনের অগোচরে তীরের মধ্যে দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগায় সরলা। এসময় তার মা তাকে তীরের মধ্যে ঝুঁলতে দেখে শোর চিৎকার করতে থাকেন। পরে আশেপাশের লোকজনের সহায়তায় তার মা তীর থেকে দা দিয়ে দড়ি কেটে সরলাকে মাটিয়ে নামান। একপর্যায়ে জীবিত আছে ভেবে তাকে বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় তার স্বজনরা। সেখানে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রিফায়েত হোসেন অপু তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তা বলতে পারেনি।

এই বিষয়ে ডা. রিফায়েত হোসেন অপুর সাথে কথা হলে তিনি জানান, হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে বানিয়াচং থানা পুলিশের এসআই হুমায়ুন আহমেদ সুরতহাল রিপোর্ট শেষে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন এসআই হুমায়ুন আহমেদ।

  •  
  •