প্রচ্ছদ

ঝলসে গেছে যুবতীর মুখ : ঘুমন্ত অবস্থায় দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ

২৫ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫৫

sylhetsurma.com
ঝলসে গেছে যুবতীর মুখ

সিলেট সুরমা ডেস্ক : হবিগঞ্জের মাধবপুর ঘুমন্ত অবস্থায় দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপের ফলে হাবিবা আক্তার (২০) নামে এক যুবতির মুখ ঝলসে গছে। বর্তমানে গুরুতর আহত অবস্থায় সে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) ভোররাতে উপজেলার বাঘাসুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটলেও বিকেলে এই তথ্য নিশ্চিত করেন মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী। তবে এ ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে এখনও সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা। হাবিবা একই গ্রামের এখলাছ মিয়ার কন্যা।

হাবিবার পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, শুক্রবার ভোররাতে ঘুমন্ত অবস্থায় কে বা কারা ঘরের জানালার গ্রিল ভেঙ্গে হাবিবার মুখে কেমিক্যাল জাতীয় দাহ্য পদার্থ ছুড়ে মাড়ে। এতে তার পুরো মুখ ঝলসে এবং চোখ দুটি ফুলে যায়। এ সময় হাবিবার সাথে ঘুমিয়ে থাকা তার ছোট বোন আয়েশা আক্তারের (১০) হাতের কিছু অংশ ঝলসে হয়। ঘটনায় কে জড়িত তা এখনও খুঁজে বের করা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশ এ ব্যাপারে তদন্তে নেমেছেন বলে জানান তিনি।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক সাইফুর রহমান সোহাগ জানান, মেয়েটির প্রায় পুরো মুখে রক্ত জমাটে বেধে লাল রঙ ধারণ করেছে। তবে এটি এসিড নাকি অন্য কোন প্রকার কেমিক্যাল জাতীয় পদার্থ তা তারা বুঝা যায়নি।

তবে এখানে নিয়ে আসার পর তার খারাপ হতে থাকলে গুরুতর অবস্থায় রাতেই তাকে সিলেটে রেফার করা হয়েছে বলেও জানান এ চিকিৎসক।

  •  
  •