প্রচ্ছদ

মাধবপুরে দুই বোনের ওপর দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপের ঘটনায় গৃহবধূ গ্রেপ্তার

২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:১৮

sylhetsurma.com
মৌলভীবাজারে ব্রিটিশ নাগরিক হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ২

সিলেট সুরমা ডেস্ক : হবিগঞ্জের মাধবপুর ঘুমন্ত অবস্থায় দুই বোন হাবিবা ও আয়েশার ওপর দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপের ঘটনায় আছিয়া বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৭ জানুয়ারি) ভোররাতে উপজেলার বাঘাসুরা গ্রাম থেকে এই গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ চন্দন কুমার চক্রবর্তী।

তিনি জানান, আছিয়া বাঘাসুরা গ্রামের এলেম মিয়ার স্ত্রী ও এসিড দগ্ধ হাবিবার তালাকপ্রাপ্ত স্বামী মমিনের বোন।

প্রসঙ্গত, একই গ্রামের এখলাছ মিয়ার কলেজ পড়ুয়া মেয়ে সদ্য তালাকপ্রাপ্ত হাবিবা (২০) ও তার চাচাতো বোন ৫ম শ্রেণির ছাত্রী আয়েশা বৃহস্পতিবার রাতে খাওয়া দাওয়া শেষে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। শুক্রবার ভোর রাতে কে বা কারা ঘরের জানালার গ্রিল ভেঙ্গে তাদের ওপর দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়।

আশংকাজনক অবস্থায় দুবোনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়ে। এ ঘটনায় হাবিবার ভাই সৈয়দ মিয়া বাদী হয়ে হাবিবার তালাকপ্রাপ্ত স্বামী নাসিরনগর উপজেলার শাইয়ক গ্রামের মমিনুলকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, ঘটনার সাথে জড়িত থানার অভিযোগে মমিনের বোন আছিয়াকে গ্রেপ্তার করে রোববার আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

হাবিবার চাচাতো ভাই কাউছার মিয়া জানান, গত এক বছর আগে হাবিবার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী নাসিরনগর উপজেলার শাইয়ক গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে মমিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে হাবিবা প্রবাসী বাবা এখলাছ মিয়ার বাড়িতে বসবাস করতেন। মমিনের সঙ্গে বনাবনি না হওয়ায় ৩/৪মাস আগে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এ কারণেই প্রতিশোধ নিতে মমিনুল এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ব্যাপারে মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, মমিনুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

  •  
  •