,





অনিয়ম হলে উপজেলায় ভোট বন্ধ কিন্তু আপস নয় : সিইসি

সিইসি

সিলেট সুরমা ডেস্ক : উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অনিয়ম হলে প্রয়োজনে ভোট বন্ধ করে দেওয়া হবে কিন্তু কোনো আপস করা যাবে না বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর নির্বাচনী প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটে (ইটিআই) পঞ্চম উপজেলা নির্বাচন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ‘প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ’ উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, ‘কোনও রিটার্নিং অফিসার যদি মনে করেন তার সম্পূর্ণ উপজেলায় নির্বাচন করার পরিবেশ নেই, তবে সেটা বন্ধ করে দেওয়ার সুপারিশ করবেন। কমিশন সেটা বন্ধ করে দিতে পারবে। আমরা সে অবস্থানে থাকতে চাই। যদি এমন কোনও ঘটনা সৃষ্টি হয় যে, নির্বাচন রিটার্নিং অফিসারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে, তাহলে পুরো উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বন্ধ হবে।  কিন্তু নির্বাচনে কোনও রকম অনিয়মের সঙ্গে আপস করা যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘মানুষ ভোট দেবে। ভোটারের পছন্দের প্রার্থী বিজয়ী হবে। প্রার্থী কোন দলের, কোন ধর্মের, কোন বর্ণের—সেটা দেখার দায়িত্ব আমাদের নয়।’

কর্মকর্তাদের উদ্দেশ করে সিইসি বলেন, ‘এজেন্টদের নিয়ে সব সময় আপনাদের বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। নির্বাচনে প্রার্থীরা যাতে ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট দেন সে জন্য তাদের উৎসাহিত করবেন। তবে এজেন্ট থাকা এবং যাওয়ার দায়িত্ব তো আপনারা নিতে পারেন না। সেটা প্রার্থীর বিষয়। প্রার্থীদের উৎসাহিত করবেন, যাতে তারা এজেন্ট দেন। এজেন্টরা যাতে সেখানে নিরাপদে নির্ভয়ে থাকতে পারেন, এটা দেখবেন।’

নূরুল হুদা বলেন, ‘অনেকে বলেন আমাদের এজেন্টকে কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হয়নি। আপনারা যদি না পাঠান, তাহলে কেন্দ্রে এজেন্ট কীভাবে যাবে? পোলিং এজেন্টদের বিষয়ে অভিযোগ আসে বেশি যে তাদের কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হয় না। অভিযোগগুলো অনেক ক্ষেত্রেই সঠিক না। কিন্তু আপনাদের নিশ্চয়তা দিতে হবে নির্ভয়ে যেন তারা কেন্দ্রে যেতে পারেন।’

সিইসি আরও বলেন, ‘বলা হয়ে থাকে যে ভোটারদের ভোট দিতে আসতে দেওয়া হয় না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের এ বিষয়টি ভালোভাবে বুঝিয়ে দেবেন। কোনও কোনও জায়গায় ভয়ভীতি দেখানো হয় বা হতে পারে। সেগুলো ভালোভাবে নজরদারিতে রাখতে হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের এসব জায়গায় বাড়তি সতর্কতায় থাকতে বলবেন, যাতে ভোটাররা নির্ভয়ে, বিনা বাধায় ভোটকেন্দ্রে গিয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন।’

নির্বাচনের আগে, পরে এবং নির্বাচনের দিন যাতে কোনও সহিংস ঘটনা না ঘটে এ বিষয়ে লক্ষ রাখতে হবে বলেও নির্দেশনা দেন সিইসি।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

4Shares

Leave a Reply


শিরোনাম

সম্পাদক ও প্রকাশক মো. নাজমুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদক : আমিনুল ইসলাম রোকন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : আর কে চৌধুরী
সিলেট থেকে প্রকাশিত।
ফোন : ০৮২১-৭১১০৬৯,
মোবাইল : (নির্বাহী সম্পাদক-০১৭১৫-৭৫৬৭১০ )
০১৬১১-৪০৫০০১-২(বার্তা),
০১৬১১-৪০৫০০৩(বিজ্ঞাপন), ইমেইল : www.sylhetsurma2011@gmail.com
ওয়েব : www.sylhetsurma.com