একটি স্বার্থান্বেষী মহল সুপরিকল্পিতভাবে গুজব ছড়াচ্ছে : আইজিপি

প্রকাশিত: ৮:২২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০১৯

একটি স্বার্থান্বেষী মহল সুপরিকল্পিতভাবে গুজব ছড়াচ্ছে : আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল সুপরিকল্পিতভাবে দেশকে অস্থিতিশীল করতে গুজব ছড়াচ্ছে। শুধু দেশ নয়, দেশের বাইরে থেকেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের পোস্ট শেয়ার করা হচ্ছে।
জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, এপর্যন্ত গুজব রটনার অভিযোগে ৬০টি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, ২৫টি ইউটিউব চ্যানেল ও ১০টি অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধ করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, সারাদেশে গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন আট জন, যাদের কেউই শিশু অপহরণকারী ছিলেন না। এমনকি যারা গণপিটুনিতে আহত হয়েছেন, তাদের কারও বিরুদ্ধে শিশু অপহরণের অভিযোগ পাওয়া যায়নি। গুজব ও গণপিটুনির অভিযোগে ৩১টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ১০৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
আইজিপি বুধবার পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা বলেন।
আইজিপি বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে রুখে দিতে স্বার্থান্বেষী একটি মহল এসব গুজব উসকে দিচ্ছে। তারা দেশে অস্থিরতা সৃষ্টিতে অন্য উপায়ে ব্যর্থ হয়ে এ পথ বেছে নিয়েছে।
তিনি বলেন, ‘বৃত্তের আড়ালে থেকে বা দেশের বাইরে থেকে অনেকে এ ধরনের গুজবের পোস্ট ছড়িয়ে দিচ্ছে। আমরা তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে গ্রেফতার হওয়া অনেকেই সরকারবিরোধী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে আমরা তথ্য পেয়েছি। এমনকি দুবাই থেকে এক ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছেন, তিনি সরকারবিরোধী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। আমরা তাকেও শনাক্ত করেছি।’
তিনি বলেন, গণপিটুনি দিয়ে যারা মানুষ হত্যা করছে এবং গুজব ছড়াচ্ছে তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। যে যত বড় শক্তিশালীই হোক না কেন, আমরা কাউকে ছাড় দেবো না। প্রত্যেককে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।’
পুলিশ প্রধান বলেন, ‘গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে আইন নিজের হাতে তুলে নিয়ে আপনি কিন্তু হত্যা মামলার আসামি হয়ে যাচ্ছেন। হত্যা মামলার আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হয়ে থাকে। যেখানেই থাকুন না কেন, আমরা আপনাকে খুঁজে বের করবো এবং সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য আইনের আওতায় আনা হবে।’
তিনি বলেন, ‘বৃহস্পতিবার থেকে দেশজুড়ে গুজব বিরোধী সচেতনতা সপ্তাহ পালন করা হবে। এর অংশ হিসেবে প্রতিটি জেলা, থানা ও মেট্রোপলিটন এলাকায় পুলিশ সদস্যরা উঠান বৈঠক করবেন। স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় গিয়ে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সঙ্গে মতবিনিময় করে গুজবে আতঙ্কিত না হওয়ার প্রচারণা চালানো হবে।’
তিনি বলেন, ‘সচেতনতা সপ্তাহের অংশ হিসেবে আগামী শুক্রবার জুমার নামাজের খুতবায় ইমামদেরকে গুজববিরোধী বয়ান করতে বলা হবে।’

 

ঢাকা, ২৪ জুলাই, ২০১৯ (বাসস)

  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ