প্রাণহানী..

প্রকাশিত: ১০:৩১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৬

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: জেলার কুলাউড়া ও জুড়ীতে পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরও ৪ জন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।   জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার দুপুর ১১টার দিকে কুলাউড়া- বড়লেখা রোডের ইয়াকুব নগর এলাকায় যাত্রিবাহী সিএনজি চালিত অটোরিক্সার সামনের চাকা ব্লাষ্ট হয়ে গেলে একই পরিবারের ৫ জন যত্রি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে সিলেট নর্থ ইস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় ইসলাম উদ্দিন (২৫) নামের একজনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ইসলাম উদ্দিনের বোন হালিমা বেগম, হাজেরা বেগম ও তার স্বমী আনছার উদ্দিন ও হাজেরা বেগমের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রয়েছেন এবং তারা বড়লেখা উপজেলার বাসিন্দা বলে জানিয়েছেন কুলাউড়া থানার সাব- ইন্সপেক্টর দিদার।
অপরদিকে দুপুর ১২টার দিকে একই রোডের জুড়ী উপজেলার মানিকসিংহ এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিক্সার নিয়ন্ত্রন হারিয়ে উল্টে গেলে আমিনুল ইসলাম হৃদয় (১৭) নামের এক কলেজ ছাত্র গুরুতর আহত হন। তাৎক্ষনিকভাবে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা সাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। তিনি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার মো. আরজু মিয়ার ছেলে এবং স্থানীয় একটি কলেজের একাদ্বশ শ্রেণীর ছাত্র। জুড়ী থানার সাব- ইন্সপেক্টর মো. কামরুজ্জামান বলেন, বড়লেখা থেকে ছেড়ে আসা কুলাউড়া গামী একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সা খুব দ্রুত গতিতে চালাচ্ছিল এবং বড় একটি গাড়িকে পাস কাটিয়ে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেললে গাড়িটি উল্টে যায় আর এতে তার মৃত্যু হয় বলে ধারনা করা যাচ্ছে।
কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শামসুদ্দোহা (পিপিএম) ও জুড়ী থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হামিদুর রহমান পৃথক দুটি সড়ক দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ