• ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

রক্তাক্ত জখম …

sylhetsurma.com
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৬

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি :::  বিয়ানীবাজারে কতিপয় যুবক বসতঘরে ঢুকে জাকির নামের এক যুবককে বেধড়ক মারপিট ও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। এ সময় পুত্রকে বাঁচাতে মা, ভাইকে বাঁচাতে বোন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকে লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘুঙ্গাদিয়া মালিগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাতে আহত জাকির বাদী হয়ে ৭ জনের নামোল্লেখ করে থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। জানা যায়, মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া মালিগ্রামে জাহেদ আহমদ ওরফে দাদা ভাই সঙ্গীয়দের নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে জাকিরকে আবারও রক্তাক্ত জখম করে বীরদর্পে চলে যায়। এ ঘটনায় বাছিত, জাহেদ, সাহেদ, সাজনসহ ৭ জনের নামোল্লেখ করে জাকির থানায় এজাহার দাখিল করেছন। এদিকে, সন্ত্রাসী আক্রমণের সময় জাকিরের আর্তচিৎকার শুনে এলাকার অনেকে এগিয়ে এলেও সন্ত্রাসীদের ভয়ে কেউ তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়নি। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার পৌরশহর থেকে লোকজন গিয়ে আহত জাকিরকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুম আহমদ জানান, জাকিরের ডান পায়ে রক্তাক্ত জখম রয়েছে। তার পায়ে ১৫টি সেলাই লেগেছে। তিনি জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুস সালাম মো. বদরুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।