জেলা পরিষদ নির্বাচন-

প্রকাশিত: ৯:৫৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৬

সাবেক প্রশাসকদের জয়-জয়কার
সুনামগঞ্জে স্থানীয় কোন্দলে ভরাডুবি

সিলেট সুরমা ডেস্ক
অবশেষে সারাদেশের মতো সিলেটেও শেষ হয়েছে জেলা পরিষদ নির্বাচন। তবে শুধুমাত্র সুনামগঞ্জ ব্যতিত সবকটি জেলায় দলীয় সমর্থন প্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সাবেক প্রশাসকরাই নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনকে ঘিরে সাধারণ জনগণের মধ্যে তেমন কোন কৌতুহল প্রত্যক্ষ করা না গেলেও দলীয় প্রার্থী এবং ভোটার জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে ছিল একটি উৎসবের আমেজ। এই নির্বাচনে প্রশাসক পদে বিএনপির অংশগ্রহণ না থাকায় কার্যতো নির্বাচনটি অনেকটা একপেশে ছিল বলে জানিয়েছেন অনেকেই। তবে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় একটা টান টান উত্তেজনা ও সাথে আশংকাও বিদ্যমান ছিল ভোটারদের মধ্যে। এদিকে হবিগঞ্জে কোন প্রার্থী অংশ না নেওয়ায় জেলা পরিষদের প্রশাসক পদে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী।
সিলেট
অনেকটা দাপটের সাথেই সিলেট জেলা পরিষদের প্রশাসক পদে নির্বাচিত হলেন ভারপ্রাপ্ত সাবেক জেলা প্রশাসক, প্রবীন রাজনীতিবিদ ও আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী লুৎফুর রহমান। সিলেটের বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আওয়ামী লীগ দলীয় এই প্রার্থী বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লুৎফুর রহমান আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। তিনি সিলেটে নির্ধারিত ১৫টি কেন্দ্রের মধ্যে সব কয়টি কেন্দ্রের ভোটের বেসরকারি ফলাফলের ভিত্তিতে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন লুৎফুর রহমান। আনারস প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৭৯৬টি ভোট। অন্যদিকে, লুৎফুর রহমানের নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী শিক্ষাবিদ এনামুল হক সরদার কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৫৫৩ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।
মৌলভীবাজার
জেলা পরিষদ নির্বাচনে তুমুল প্রতিদ্বন্ধিতা করে বিজয়ের শেষ হাসি হাসলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ, সাবেক এমপি বর্তমান জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান। প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীর তুলনায় বয়সের বিস্তর ফারাক থাকা সত্ত্বেও নিজের ব্যক্তি ইমেজকে পুঁজি করে বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়েও ভাগ্য সহায় হলো না সাবেক এমপি এম এম শাহিনের। আর শেষ পর্যন্ত ভালোই চমক দেখিয়েছেন আরেক প্রতিদ্বন্ধী এম রহিম শহিদ (সিআইপি)। প্রতিনিধিদের দেওয়া তথ্যমতে, চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুর রহমান চশমা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৪২ ভোট এবং তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী এম এম শাহিন আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৮৯ ভোট, এম রহিম শহীদ মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৫৩ ভোট, সাহাবুদ্দিন সাবুল প্রজাপতী প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫৭ ভোট, সাংবাদিক বকসি ইকবাল আহমদ ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫ ভোট ও সুয়েল আহমদ তালগাছ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ ভোট।
সুনামগঞ্জ
জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী নুরুল হুদা মুকুটের কাছে ধরাশায়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী প্রাক্তন জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন। মোটর সাইকেল মার্কা নিয়ে নুরুল হুদা মুকুট পেয়েছেন ৮১৭ ভোট এবং এনামুল কবির ইমন চশমা মার্কা নিয়ে ভোট পেয়েছেন ৩৯২টি। এর ফলে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বেসরকারীভাবে সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নুরুল হুদা মুকুট।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১