রাজধানীতে জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযান, ৩ মৃতদেহ ও বিস্ফোরক উদ্ধার

প্রকাশিত: ৫:২৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৮

সিলেট সুরমা ডেস্ক :  রাজধানীর তেজগাঁওয়ের পশ্চিম নাখালপাড়ায় ‘রুবি ভিলা’ নামে একটি বাড়িতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) অভিযানে সন্দেহভাজন তিন জঙ্গি সদস্য নিহত হয়েছে।
র‌্যাব সদর দফতরের উপ-পরিচালক মেজর আব্দুল্লাহ আল মেহেদী বাসসকে এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন,অভিযানের সময় সেখান থেকে একাধিক সুইসাইডাল ভেস্ট, দুটি পিস্তল, তিনটি অবিস্ফোরিত ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি), বিস্ফোরক দ্রব্য ও কিছু বাল্ব উদ্ধার করা হয়েছে।
এই অভিযানে দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে। এর মধ্যে একজনের শরীরে গ্রেনেডের ¯িপ্রন্টার বিদ্ধ হয়েছে। দু’জনকেই হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
র‌্যাবের অভিযানের পর দুপুরে ওই ভবনের বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধারে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, ক্রাইম সিন ও ফরেনসিক ইউনিটের তৎপরতা শেষে উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে বলে মেজর আব্দুল্লাহ মেহেদী বাসসকে নিশ্চিত করেছেন।
তেজগাঁয়ের ‘রুবি ভিলার’ ওই বাড়ির পঞ্চম তলার জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) মো. বেনজীর আহমেদ।
তিনি সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত দুইটার দিকে র‌্যাব সদস্যরা জানতে পারে জঙ্গিরা রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ায় অবস্থান নিয়ে নাশকতার পরিকল্পনা করছে। পরে নাখালপাড়ায় ১৩/১ ‘রুবি ভিলা’ নামের ছয় তলা ভবনের পঞ্চম তলায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব-৩ এর সদস্যরা। জঙ্গি সদস্যরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ও গ্রেনেড ছোড়ে।এক পর্যায়ে গ্রেনেড বিস্ফোরণ ও গুলি বিনিময়ের পর আজ ভোর রাতে ওই ভবনের পঞ্চম তলায় সন্দেহভাজন তিন জঙ্গি সদস্যের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে র‌্যাব সদস্যরা। এর আগে রুবি ভিলার বাসিন্দাদের নিরাপদে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়।
র‌্যাব ডিজি বলেন, সেখানে ছবিসহ জাহিদ নামে একজনের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) পাওয়া গেছে এবং অপর একটি এনআইডি’র ফটোকপিতে জাহিদের ছবি সম্বলিত জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি পাওয়া গেছে।
তিনি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে এ দু’টি এনআইডি কার্ডই ভুয়া। তারা(জঙ্গি সদস্য) এই পরিচয়পত্র দিয়েই বাসা ভাড়া নিয়েছিল। নিহত তিন জনের বয়স আনুমানিক ২০ থেকে৩০ বছরের মধ্যে।
তিনি জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেখান থেকে বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে র‌্যাব ।
এক প্রশ্নের জবাবে বেনজীর আহমেদ বলেন, জঙ্গি সদস্যদের মৃতদেহের ডিএনএ নমুনা সংরক্ষণ করা হবে এবং তদন্তের মাধ্যমে তাদের পরিচয় নিশ্চিত করা হবে।
র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক (সিইও) লে. কর্ণেল এমরানুল হাসান বলেন,নিহত জঙ্গি সদস্যরা গত ৪ জানুয়ারি ওই বাড়ির পঞ্চম তলা মেস হিসেবে ভাড়া নেয়। পঞ্চম তলার ফ্লাটের তিনটি কক্ষের একটিতে তিন জঙ্গি সদস্য অবস্থান করছিল। অভিযানের পর অপর দুটি কক্ষের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব হেফাজতে নেয়া হয়েছে। ওই বাড়ির মালিকের নাম সাব্বির হোসেন (৫০)। তিনি মেস ভাড়া দেয়ার জন্য কেয়ারটেকার রাখলেও এই ভাড়াটিয়াদের ব্যাপারে কিছু জানতেন না বলে র‌্যাবকে জানান। কেয়ারটেকার রুবেলের মাধ্যমে এই তিনজন ফ্ল্যাটটিতে উঠেছে বলে বাড়ির মালিক দাবি করেন। ১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ (বাসস)

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১