,

ভোলায় হাঁস পালনের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি

সিলেট সুরমা ডেস্ক : ভোলা জেলার বিভিন্ন চরাঞ্চলে হাঁস পালন করে দরিদ্রকে জয় করেছেন বহু পরিবার। বিচ্ছিন্ন এসব দ্বীপগুলোতে প্রচুর বিলাঞ্চল ও সমতল জমি থাকায় এখানে হাঁস প্রতিপালন অনেকটাই সহজ। চারদিকে নদী-খাল থাকায় প্রাকৃতিকভাবে প্রচুর শামুক, ঝিনুক, কচুরিপানা ও ছোট মাছ পাওয়া যায় এখানে। যা হাঁেসর প্রধান খাদ্য। এর মাধ্যমে বেকারত্ব দূর করে কর্মসংস্থানের পথ সৃষ্টি হয়েছে অনেকের। চরগুলোতে সম্পূর্র্ণ নিজেদের উদ্যোগে গড়ে উঠেছে শত শত হাঁসের খামার। এসব খামারে উৎপাদিত ডিম গ্রামের হাট-বাজার হয়ে চলে যায় শহুরে দোকানগুলোতে। সাম্প্রতিক সময়ে চরাঞ্চলে বেকারত্ব দূর করতে হাঁস পালনে আগ্রহ বাড়ছে বেকারদের। চর চটকিমারা, ভেলুমিয়া চর, ভেদুরিয়া চর, চর রমেশ, চর চন্দ্রপ্রসাদ, মাঝের চর, চর গাজীসহ জেলার ৫০টিরও বেশি চরে সাম্প্রতিক সময়ে হাঁস পালন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। পরিবারের পুরুষদের পাশাপাশি নারী সদস্যরাও হাঁস পালনে এগিয়ে আসছে।উপজেলা সদরের ভেদুরিয়া ইউনিয়নের বিচ্ছিন্ন চর চটকিমারা গ্রাম। খেয়া নৌকার মাধ্যমে প্রায় ১০ মিনিটের তেতুলীয় নদী পাড়ি দিয়ে যেতে হয় এ চরে। প্রায় দেড় হাজার মানুষের বসবাস এ গ্রামে। এখানে হাঁস পালন করে অনেকেই বেকারত্ব দূর করেছেন। ভাগ্য বদলেছে এখানকার বহু পরিবারের। বসত ঘরের পাশে নেট (জাল) দিয়ে গোড়ে তুলেছেন হাঁসের খামার। প্রতিটি খামারে ৪’শ থেকে ১ হাজার হাঁস রয়েছে। কথা হয় হাঁস খামারী মো: আলাউদ্দিন মিয়া (৪০) এর সাথে। তিনি গত ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে হাঁস পালন করে আসছেন। বসত ঘরের পাশের জমিতে গোড়ে তুলেছেন হাঁসের খামার। প্রথমে ২’শ হাঁস দিয়ে শুরু করলেও বর্তমানে তার প্রায় ৭’শ হাঁস রয়েছে। দৈনিক প্রায় ৫’শ ডিম হয় তার খামারে। ১’শ ডিম ৯’শ টাকা মূল্য হারে তার ৪হাজার ৫’শ টাকার ডিম বিক্রি হয় দৈনিক। অন্যান্য ব্যয় বাদ দিয়ে তার ২ থেকে আড়াই হাজার টাকা লাভ হয়। তিনি বলেন, প্রতিদিন সকালে হাঁসগুলোকে ধান খায়ানোর পর নদী, খাল অথবা বিলের ধারে চড়ানোর জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। বিকেলে খামারে নিয়ে এসে আবার খাবার দিতে হয়।মো: মোসলেউদ্দিন (২৮) বাসস’কে বলেন, গত ৪ বছর যাবত তিনি হাঁস পালন করছেন। আগে কৃষি কাজ করলেও অধিক লাভের আশায় হাঁস পালন শুরু করেছেন। বর্তমানে তার ৫’শ হাঁস রয়েছে। দৈনিক প্রায় সাড়ে ৩’শ ডিম হয় তার খামারে। ডিম বিক্রি করে তিনি স্বচ্ছলতা ফিরে পেয়েছেন বলে জানান।
শুধু মোসলেউদ্দিন ও আলাউদ্দিন নয়, হাঁস পালন করে ভাগ্য বদল করেছেন অনেক খামারী। এর মধ্যে আবুল কালাম (৩২) ৫’শ হাঁস রয়েছে। রুবেল (৩০) ৪’শ হাঁস, ইউসুব জমাদ্দার (৩৩) সাড়ে ৩’শ হাঁস, জসিমউদ্দিন (৩০) ৫’শ হাস, আব্দুল হাই (৩৫) ৬’শ হাঁসসহ প্রায় অর্ধশত খামারে হাজার হাজার হাঁস রয়েছে। শুধু হাঁস প্রতিপালন করে জীবিকা নির্বাহ করছে এসব পরিবার। ডিমের পাশাপাশি এ শীতে হাঁস বিক্রি করেও লাভবান হয়েছেন অনেকে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: সিরাজ গোলদার বাসস’কে বলেন, চটকিমারায় অনেক দিন থেকেই হাঁস পালন করে আসছেন পরিবারগুলো। তবে সাম্প্রতিক সময়ে বানিজ্যিকভাবে হাঁস পালনের প্রবনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেক পরিবার অর্থনৈতিকভাবে মুক্ত হচ্ছে। হাঁস পালনে স্বল্প খরচ হওয়ায় অনেকেই এর সাথে যুক্ত হচ্ছে। আমরা ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা করছি।এলাকাবাসীর সাথে আলাপকালে জানা যায়, বিচ্ছিন্ন এ দ্বীপের বাসিন্দারা কৃষি কাজ ও মাছ ধরার পেশায় নিয়োজিত। আবার কেউ কেউ গবাদি পশু-পাখি পালন করেন। প্রায় অর্ধশত পরিবার হাঁস পালনের সাথে সম্পৃক্ত। প্রতিটি পরিবারই এখন অভাবকে জয় করেছে। তাদের ছেলে-মেয়েরা স্কুলে যায় নিয়মিত। পারিবারিকভাবে প্রায় প্রতিটি বসত ঘরে হাঁস লালন করা হলেও বাণিজ্যিকভাবে বর্তমানে হাঁস পালন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এতে করে বদলে যাচ্ছে অনগ্রসর ও পিছিয়ে পড়া এ জনগোষ্ঠীর জীবনমানসহ সার্বিক চিত্র।ইলিশা ইউনিয়নের মাঝের চরের খামারী জোছনা বেগম জানান, তার স্বামী কৃষি কাজ করেন। তার খামারে ৫’শ হাঁস রয়েছে। তিনি ছেলেকে নিয়ে খামার পরিচালনা করেন। হাঁস পালনে তেমন পরিশ্রম হয়না জানিয়ে বলেন, সকালে এসব হাঁস তার ছেলে বিল ও নদীর পাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে দলবদ্ধ ভাবে শামুকসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক খামার খায় তারা। সন্ধ্যের আগে আবার খামারে নিয়ে আসা হয়। তারপরেও দিনে ২বার করে তাদের খাবার হিসেবে ধান দিতে হয়। দৈনিক প্রায় ১ হাজার টাকা খরচ হয় ৫’শ হাঁসের জন্য। আর লাভ হয় প্রায় ২ হাজার টাকা।জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা: মো: আলমগীর বাসস’কে জানান, জেলায় বর্তমানে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ৬শতাধিক হাঁসের খামার গোড়ে উঠেছে। এসব খামারে বর্তমানে ১৭ লক্ষ হাঁস রয়েছে। একটি উন্নত জাতের হাঁস বছরে আড়াই’শ থেকে ৩’শ ডিম দেয়। এসব খামারীদের সাথে উঠোন বৈঠক, সেমিনার, প্রশিক্ষণ ও প্রচার পত্র বিলি মাধ্যমে তাদের দক্ষ করে তোলা হচ্ছে। দেয়া হচ্ছে সব ধরনের গারিগরি সহায়তা।তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে প্রাণি সম্পদ চলতি অর্থবছরে জেলার প্রতি উপজেলায় ৫০ জন করে মোট ৭উপজেলায় ৩’শ ৫০ খামারীকে প্রশিক্ষণের আওতায় এনেছে। এছাড়া জেলায় সরকারিভাবে হ্যাচারীসহ হাঁস প্রজনন খামার রয়েছে। ফলে এখানথেকেই খামারীরা হাঁসের ডিম ও উন্নত জাতের বাচ্চা সংগ্রহ করতে পারেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ (বাসস)



এ সংবাদটি 164 বার পড়া হয়েছে.
এ সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •   
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

...................................................................................................... .......................................................................................................... ............................................................................................................. logo copy ........................................................................................................... ........................................................................................................ ......................................................................................................
12-4-300x214 ...........................................................  
সম্পাদক ও প্রকাশক মো. নাজমুল ইসলাম
নির্বাহী সম্পাদক : আমিনুল ইসলাম রোকন
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : আর কে চৌধুরী
সিলেট থেকে প্রকাশিত।
ফোন : ০৮২১-৭১১০৬৯,
মোবাইল : (নির্বাহী সম্পাদক-০১৭১৫-৭৫৬৭১০ )
০১৬১১-৪০৫০০১-২(বার্তা),
০১৬১১-৪০৫০০৩(বিজ্ঞাপন), ইমেইল : www.sylhetsurma2011@gmail.com
ওয়েব : www.sylhetsurma.com
শিরোনাম :
ওয়েব হোম বিডি’র যাত্রা শুরু শীঘ্রই ঘোষণা হচ্ছে সিলেট জেলা ও মহানগর যুবদলের কমিটি! বঙ্গবন্ধু ছিলেন এদেশের মাটি ও মানুষের পরম বন্ধু : লুৎফুর রহমান সাম্প্রদায়িক অপশক্তি প্রতিহত করুন: ওবায়দুল কাদের বড়লেখায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষ, নিহত ১ সিলেটের ডাকের ডিক্লারেশন বাতিলের আদেশ হাই কোর্টে স্থগিত ছিনতাইয়ের শিকার বউ-শাশুড়ি মিসবাহ সিরাজকে সংসদে পাঠানো সময়ের দাবি: কামরান সিলেট নগরীর লামাবাজারে সৈনিক ক্লাব থেকে ২৩ জুয়াড়ি আটক ফেঞ্চুগঞ্জে ড্রাইভার শ্রমিকদের মাঝে বয়স্কভাতা প্রদান বাসদ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ম. আ. মোক্তাদিরের ২১ মৃত্যু বার্ষিকী ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার যুবলীগ নেতা মিঠু অসুস্থ : দোয়া কামনা চেক জালিয়াতী মামলার পলাতক আসামী সুহেলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি অবশেষে জেল থেকে মুক্তি পেলেন হাসনাত করিম জনসংখ্যার তুলনায় ব্যাংক সংখ্যা কম: অর্থমন্ত্রী জৈন্তাপুর থেকে কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার ঈদ জামাতে এসএমপির থাকবে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা হবিগঞ্জে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাব ও মানবাধিকার তথ্য পর্যবেক্ষণ সোসাইটির মানববন্ধন বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন মাদ্রাসায় গণধর্ষণের শিকার নাবালিকা আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন মাস্টার্সের সনদ পেল কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিস পবিত্র ঈদুল আজহা আগামী ২২ আগস্ট মেঘনার স্রোতে প্রাণ গেল দুই স্কুল ছাত্রের বঙ্গবন্ধু হত্যার পরও এখনো সেই ষড়য়ন্ত্র চলছে: আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সড়কে অনিয়ম বরদাশত করা যাবে না : প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লার মামলায় খালেদার ছয় মাসের জামিন বহাল প্রাথমিক শিক্ষা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত হলে পঞ্চমে সমাপনী থাকবে না: মোস্তাফিজুর রহমান ওবায়দুল কাদের জানতে চান বিএনপি কি পাগলা কুকুর? র‌্যাবের হাতে জাবালে নূরের ৬টি বাস আটক সিলেট নগরীতে স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে মৌলভীবাজারের বড়লেখায় গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ১৪ সেনা সদস্য নিহত দোষ করে কয়েকজন, বদনাম হয় পুরো ছাত্রলীগের: ওবায়দুল কাদের নিজেকে বিজয়ী ঘোষণার দাবিতে রিটার্নিং অফিসার আলীমুজ্জামানের কাছে আরিফ  বানিয়াচংয়ে সাবেক ইউপি সদস্যের ছেলে পুলিশের হাতে ইয়াবাসহ আটক মৌলভীবাজারের শমশেরনগরে জনতার হাতে দুই ভাইসহ আটক ৩ আওয়ামী লীগ নেতা শামীমের মৃত্যুতে দক্ষিণ সুরমা জার্নালিস্ট ক্লাবের শোক প্রকাশ আওয়ামী লীগ নেতা শামীমের মৃত্যুতে স্বর্ণশিখা সমাজকল্যাণ সমিতির শোক প্রকাশ আওয়ামী লীগ নেতা শামীমের মৃত্যুতে হাজী গুলজারের শোক প্রকাশ আওয়ামী লীগ নেতা শামীমের মৃত্যুতে ২৭ নং ওয়ার্ড আ’লীগের শোক প্রকাশ আওয়ামী লীগ নেতা শামীমের ইন্তেকালে কাউন্সিলর লিপনের শোক প্রকাশ অবশেষে লাইফ সাপোর্টে থাকা আলী আর নেই লাইফ সাপোর্টে মোঃ আলী : দোয়া কামনা গোলাপগঞ্জে শিক্ষামন্ত্রীর মতবিনিময় বয়কট আওয়ামী লীগ নেতাদের আরিফ জনগণের মনে জায়গা করে নিয়েছে : খসরু  বৃহস্পতিবারও সড়ক অবরোধের ঘোষণা শিক্ষার্থীদের স্থগিত ২ কেন্দ্রে ভোট ১১ আগস্ট  ২ যুগের অধিক সময় ধরে এলাকার সমাজ সেবায় নিয়োজিত তৌফিক বকস্ লিপন