রাবি শিক্ষক হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি ও ৩ জনের যাবজ্জীবন দণ্ড

প্রকাশিত: ৪:১০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৫

রাবি শিক্ষক হত্যা মামলায় ২ জনের ফাঁসি ও ৩ জনের যাবজ্জীবন দণ্ড

সিলেট সুরমা ডেস্ক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যা মামলায় ২ আসামিকে ফাঁসি এবং ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (৮ মে) দুপুরে রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শিরিন কবিতা আখতার এ রায় ঘোষণা করেন।ফাঁসর দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত আসামিরা হলো, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলাম ও বগুড়ার মাসকাওয়াত হোসেন সাকিব ওরফে আবদুল্লাহ।যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রহমতুল্লাহ এবং খুনীদের আশ্রয়দাতা নগরীর উপকণ্ঠ পবা উপজেলার নারকেলবাড়িয়া পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার ও তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে রিপন আলী। তাদের মধ্যে শরিফুল পলাতক রয়েছেন। আর জামিনে ছিলেন আব্দুস সাত্তার। বাকি তিন আসামিকে দুপুরে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।এর আগে ২০১৭ সালের ৬ নভেম্বর জেএমবি’র আট সদস্যকে অভিযুক্ত করে ড. রেজাউল হত্যা মামলার চার্জশিট দাখিল করেন রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পুলিশের পরিদর্শক রেজাউস সাদিক। তবে হত্যা মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে জেএমবি সদস্য খাইরুল ইসলাম বাধন, নজরুল ওরফে বাইক হাসান ও ওসমান আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর অভিযানে নিহত হন।দেশব্যাপী বগার, মুক্তমনা, প্রগতিশীল ব্যক্তিদের টার্গেট কিলিংয়ের অংশ হিসেবে অধ্যাপক রেজাউল করিমকে হত্যা করে জঙ্গিরা। মামলার তদন্তে এই তথ্য পাওয়া গেছে বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়।প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল সকালে রাজশাহী মহানগরীর শালবাগান এলাকায় নিজ বাসা থেকে একটু দূরে রাবির ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে কুপিয়ে হত্যা করে জঙ্গিরা।এ ঘটনায় নিহত শিক্ষকের ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ বাদী হয়ে ওইদিনই বোয়ালিয়া থানায় মামলা করেন। এ মামলায় মোট ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষগ্রহণ শেষে বিচারক মঙ্গলবার দুপুরে জনাকীর্ণআদালতে রায় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাট পরিচালনা করেন এ্যাড: এন্তাজুল হক বাবু।

  •  
  •