রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিলের আপিল শুনানি ১৯ মার্চ

প্রকাশিত: ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৬

সিলেট সুরমা ডেস্ক ::::  সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম অন্তর্ভুক্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে করা রিট খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল শুনানির জন্য ২০১৭ সালের ১৯ মার্চ তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।
বুধবার সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন আবেদন শুনানির জন্য তারিখ নির্ধারণ করে সেটি পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠিয়েছেন।
রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা।
১৯৭২ সালের সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামের বিষয়টি ছিল না। পরে সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদের শাসনামলে ১৯৮৮ সালের ৫ জুন চতুর্থ জাতীয় সংসদে অষ্টম সংশোধনী পাস হয়। ওই সংশোধনীর মাধ্যমে সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে অন্তর্ভুক্ত করে সরকার। এর মাধ্যমে সংবিধানে অনুচ্ছেদ ২-এর সঙ্গে ২(ক) দফা যুক্ত হয়।
এতে বলা হয়, ‘প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম হবে ইসলাম, তবে অন্যান্য ধর্মও প্রজাতন্ত্রে শান্তিতে পালন করা যাবে’।
২০১১ সালের ২৫ জুন পঞ্চদশ সংশোধনীতে ওই অনুচ্ছেদ আবারও সংশোধন করা হয়। সেখানে বলা হয়, ‘প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম, তবে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানসহ অন্যান্য ধর্মপালনে রাষ্ট্র সমমর্যাদা ও সমঅধিকার নিশ্চিত করবে।’
বিষয়টি চ্যালেঞ্জ করে ২০১৫ সালের ১ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী এই রিট আবেদন করেন। ওই বছরের ৭ সেপ্টেম্বর বিচারপতি মো. এমদাদুল হক ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের বেঞ্চ আবেদনটি খারিজ করে দেন। গত ৬ নভেম্বর খারিজের রায়টির পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশিত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১