আখালিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক রেজাসহ আহত ৪

প্রকাশিত: ৯:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭

সিলেট সুরমা ডেস্ক : সিলেট নগরের আখালিয়া এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে সন্ত্রাসীদের হামলায় স্থানীয় দৈনিক কাজীর বাজারের ফটো সাংবাদিক রেজা রুবেল (৩৫) ও তার মা, ছোট ভাই এবং ভাতিজা গুরুত্বর আহত হয়েছেন।   পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নিজ বাড়ির সামনে স্থানীয় সন্ত্রাসী বাবলু ও নাহিদের নেতৃত্বে ৫-৬জনের একটি দল ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে চলে যায় এবং বাসায় হামলা করে আসবাপত্র ভাংচুর করে পালিয়ে যায়।
এসময় আহতদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। বর্তমানে সাংবাদিক রেজা রুবেল ও তাঁর মা সাজিদা বেগম (৬৫) ছোট ভাই হাসান আহমদ (২০) এবং বাতিজা শিশু আরীয়ান আহমদ শুভ (৫) ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।
কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন সাংবাদিক রেজা রুবেলের এক হাত ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের গুরুত্বর আঘাত রয়েছে। অস্ত্রপচার চলছে।
আহত রেজারুলে জানান, একই এলাকার ৩১ নং বাসার সিকান্দর আলীর পুত্র বাবলু উরফে কালা বাবলু (২৬) দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল। তার ভয়ে এলাকার কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। গত ২৭জুলাই সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে বাবলুসহ তার সহযোগী অজ্ঞাতনামা এক মাদকসেবী সাংবাদিক রেজা রুবেলের বাসায় প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে রেজা রুবেলসহ তার পরিবারের লোকজন বাবলুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরবর্তীতে বাবলু সাংবাদিক রেজা রুবেলকে রাস্তায় পেয়ে তাকে ও তার পরিবারকে হুমকি দেয়। গত ২৮ জুলাই এ ঘটনায় রেজা রুবেল বাদি হয়ে বাবলুর বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় (নং-২১৬৯) একটি জিডি এন্ট্রি করেন। ৫ ও ৬ আগষ্ট র্যাব পরিচয় দিয়ে বাবলু বিভিন্ন মোবাইলফোন থেকে তার পরিবার ও তাকে এসএমএস দিয়ে হত্যার হুমকী দিতে থাকে। পরদিন এ হুমকির ঘটনাও রেজা রুবেল। কোতোয়ালী থানায় (নং- ৫৭৪) আরেকটি জিডি এন্ট্রি করেন।
এদিকে, গত শুক্রবার রাত ১ টার দিকে জালালাবাদ থানা পুলিশের একটি দল নতুন বাজার থেকে বাবলু উরফে কালা বাবলু ও তার সহযোগী শরীফকে গ্রেফতার করে। গতকাল দুপুরে এসএমপি এ্যাক্ট’র ৮৯ ধারায় তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। সেখান থেকে গত শনিবার বাবলু বেরিয়ে এসে তার নেতৃত্বে ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী বিকেল ৫ টার দিকে সাংবাদিক রেজা রুবেলের বাসায় দু’দফা হামলা ভাংচুর চালায়। পরে রেজা রুবেল বিভিন্ন আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে খবর দেন। পরে র্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
ফটো সাংবাদিক রেজা রুবেল জানান, বাবলু গতকাল বিকেলে তার বাসায় হামলা চালিয়েছিল তখন তিনি মাহা ইমজা মিডিয়া ফুটবল কাপের জন্য আবুল মাল আব্দুল মুহিত ক্রীড়া কমপ্লেক্সে অনুশীলনে ছিলেন। মায়ের ফোন পেয়ে দ্রুত বাসায় চলে এসে দেখি বাসার গেইট, দরজা জানালা ভাঙ্গা। এর কিছুক্ষণ পর সন্ত্রাসী বাবলুর নেতৃত্বে ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী তার বাসায় গিয়ে আবার হামলা ভাংচুর চালায়। আজ বিকালে আমি বাসা থেকে অফিসের উদ্যোশে বের হলে হৎটাত বাবলুসহ ১০/১২জন্য সন্ত্রাসী আমার উপর হামলা চালায় এবং আমার বাসায় পরিবারের উপর হামলা চালিয়ে বাসা ভাংচুর করে এবং আমার মা, ছোট ভাই ও বাতিজাসহ আহত করে আমার ব্যবরিত ক্যামেরা নিয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। ৪
সিলেট নগরের আখালিয়া এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে সন্ত্রাসীদের হামলায় স্থানীয় দৈনিক কাজীর বাজারের ফটো সাংবাদিক রেজা রুবেল (৩৫) ও তার মা, ছোট ভাই এবং ভাতিজা গুরুত্বর আহত হয়েছেন।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নিজ বাড়ির সামনে স্থানীয় সন্ত্রাসী বাবলু ও নাহিদের নেতৃত্বে ৫-৬জনের একটি দল ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে চলে যায় এবং বাসায় হামলা করে আসবাপত্র ভাংচুর করে পালিয়ে যায়।
এসময় আহতদের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। বর্তমানে সাংবাদিক রেজা রুবেল ও তাঁর মা সাজিদা বেগম (৬৫) ছোট ভাই হাসান আহমদ (২০) এবং বাতিজা শিশু আরীয়ান আহমদ শুভ (৫) ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।
কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন সাংবাদিক রেজা রুবেলের এক হাত ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের গুরুত্বর আঘাত রয়েছে। অস্ত্রপচার চলছে।
আহত রেজারুলে জানান, একই এলাকার ৩১ নং বাসার সিকান্দর আলীর পুত্র বাবলু উরফে কালা বাবলু (২৬) দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল। তার ভয়ে এলাকার কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। গত ২৭জুলাই সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে বাবলুসহ তার সহযোগী অজ্ঞাতনামা এক মাদকসেবী সাংবাদিক রেজা রুবেলের বাসায় প্রবেশ করে। এক পর্যায়ে রেজা রুবেলসহ তার পরিবারের লোকজন বাবলুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরবর্তীতে বাবলু সাংবাদিক রেজা রুবেলকে রাস্তায় পেয়ে তাকে ও তার পরিবারকে হুমকি দেয়। গত ২৮ জুলাই এ ঘটনায় রেজা রুবেল বাদি হয়ে বাবলুর বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় (নং-২১৬৯) একটি জিডি এন্ট্রি করেন। ৫ ও ৬ আগষ্ট র্যাব পরিচয় দিয়ে বাবলু বিভিন্ন মোবাইলফোন থেকে তার পরিবার ও তাকে এসএমএস দিয়ে হত্যার হুমকী দিতে থাকে। পরদিন এ হুমকির ঘটনাও রেজা রুবেল। কোতোয়ালী থানায় (নং- ৫৭৪) আরেকটি জিডি এন্ট্রি করেন।
এদিকে, গত শুক্রবার রাত ১ টার দিকে জালালাবাদ থানা পুলিশের একটি দল নতুন বাজার থেকে বাবলু উরফে কালা বাবলু ও তার সহযোগী শরীফকে গ্রেফতার করে। গতকাল দুপুরে এসএমপি এ্যাক্ট’র ৮৯ ধারায় তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। সেখান থেকে গত শনিবার বাবলু বেরিয়ে এসে তার নেতৃত্বে ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী বিকেল ৫ টার দিকে সাংবাদিক রেজা রুবেলের বাসায় দু’দফা হামলা ভাংচুর চালায়। পরে রেজা রুবেল বিভিন্ন আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে খবর দেন। পরে র্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
ফটো সাংবাদিক রেজা রুবেল জানান, বাবলু গতকাল বিকেলে তার বাসায় হামলা চালিয়েছিল তখন তিনি মাহা ইমজা মিডিয়া ফুটবল কাপের জন্য আবুল মাল আব্দুল মুহিত ক্রীড়া কমপ্লেক্সে অনুশীলনে ছিলেন। মায়ের ফোন পেয়ে দ্রুত বাসায় চলে এসে দেখি বাসার গেইট, দরজা জানালা ভাঙ্গা। এর কিছুক্ষণ পর সন্ত্রাসী বাবলুর নেতৃত্বে ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী তার বাসায় গিয়ে আবার হামলা ভাংচুর চালায়। আজ বিকালে আমি বাসা থেকে অফিসের উদ্যোশে বের হলে হৎটাত বাবলুসহ ১০/১২জন্য সন্ত্রাসী আমার উপর হামলা চালায় এবং আমার বাসায় পরিবারের উপর হামলা চালিয়ে বাসা ভাংচুর করে এবং আমার মা, ছোট ভাই ও বাতিজাসহ আহত করে আমার ব্যবরিত ক্যামেরা নিয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

ক্যালেন্ডার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১