তৃনমুল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে প্রিয় এডভোকেট শামীম !

প্রকাশিত: 3:56 PM, November 16, 2019

তৃনমুল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে প্রিয় এডভোকেট শামীম !

সিলেট সুরমা ডেস্ক : ঘনিয়ে আসছে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। সম্মেলনকে ঘিরে সরগরম উপজেলার প্রতিটি প্রান্তর। সবখানেই একই আলোচনা। কে হচ্ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ? সর্বশেষ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী এডভোকেট শামীম আহমদ তৃনমুল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাছে প্রিয় ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠেছেন। দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগ’র প্রয়াত সভাপতি মরহুম ডাঃ আব্দুস শুকুর’র সুযোগ্য সন্তান সিলেট জেলা বারের আইনজীবী এডভোকেট শামীম আহমদকে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে চান দক্ষিণ সুরমার তৃনমুল পর্যায়ের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

দীর্ঘ জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে যখন অন্তিম সময়ে এসে ব্যার্থতায় ভরা দক্ষিণ সুমরা উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি সেখানে সফলতার জন্য এডভোকেট শামীমের অবদান কম নয়। তার প্রচেষ্টার ফলে ঘুরে দাড়িয়ে দক্ষিণ সুরমার তৃনমুল রাজনীতি।

এদিকে ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান এডভোকেট শামীম আহমদ আইন পেশার পাশাপাশি দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক, হোম ল্যান্ড লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানীর পরিচালক এবং শেখপাড়া তরুণ সংঘের উপদেষ্টা সহ এলাকার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত। এ ছাড়া তিনি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের অংঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একজন একনিষ্ট কর্মী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করে আসছেন।

দক্ষিণ সুরমার যে কয়জন গুণি ব্যক্তিত্ব রয়েছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন এডভোকেট শামীম আহমদ এর পিতা মরহুম ডাঃ আব্দুস শুকুর। জীবিত থাকালীন সময়ে তিনি ছিলেন পরপোকারী ও মানবসেবী।

সাদা মনের মানুষ হিসেবে তিনি ছিলেন পরিচিত। তিনি রাজনীতি করে গেছেন মানুষের জন্য। বিনিময়ের কোনো আশা তিনি কোনো দিনই করেননি। সেই প্রয়াত ডাঃ আব্দুস শুকুর’র ছেলে এডভোকেট শামীম আহমদ এর জন্ম উপজেলার ঐতিহ্যবাহী ৪নং কুচাই ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামে। আগামী ৯ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তিনি সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হচ্ছেন বলে নেতা-কর্মীদের মুখে শুনা যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে এডভোকেট শামীম আহমদ বলেন, আমার বাবা আওয়ামী লীগের রাজনীতির পাশাপাশি সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। তাঁরই ধারাবাহিকতায় আমি আমার বাবার মতো মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করার পাশাপাশি অবহেলিত জনপদ হিসেবে পরিচিত দক্ষিণ সুরমা উপজেলার উন্নয়নে নিরলশভাবে কাজ করতে চাই। আমি চাই মানুষের ভালবাসা। সবার অনুপ্রেরণা আর সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ