অর্থনৈতিক মুক্তিকে তরান্বিত করতে হবে : সদ্য প্রাক্তন অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মাহবুব-ই জামিল

প্রকাশিত: ১১:৫৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯

অর্থনৈতিক মুক্তিকে তরান্বিত করতে হবে : সদ্য প্রাক্তন অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মাহবুব-ই জামিল

৪৯তম বিজয় দিবসের আলোচনায় সভায়
মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশবাসীর চিরকাঙ্খিত
উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলতে দূর্নীতিকে হঠিয়ে
অর্থনৈতিক মুক্তিকে তরান্বিত করতে হবে
—– সদ্যপ্রাক্তন অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মাহবুব-ই জামিল
বাংলাদেশ সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সদ্যপ্রাক্তন অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মাহবুব-ই জামিল বলেছেন, লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে বিজয় অর্জনের মাধ্যমে অর্জিত স্বাধীনতাকে অর্থবহ করে তুলতে দেশবাসীকে আরো সচেতন, আন্তরিক এবং খাঁটি দেশপ্রেমিক হতে হবে। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশবাসীর চিরকাঙ্খিত উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলতে দূর্নীতিকে হঠিয়ে আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তিকে তরান্বিত করতে হবে। দেশের আপামর মানুষ শিক্ষা, চাকুরী, চিকিৎসা আর নিরাপত্তার নিশ্চয়তা চায়। আমাদের সরকারসহ সচেতন দেশবাসীকে এসবের ব্যবস্থা করে দিতে হবে। শুধু সরকারের দিকে চেয়ে থাকলে চলবে না, প্রত্যেকের অবস্থান থেকে আমাদের প্রত্যেককে সাধ্যানুযায়ী পদক্ষেপ নিতে হবে।
গত (২৮ ডিসেম্বর) শনিবার রাতে নগরির ২৬নং ওয়ার্ডস্থ কিনব্রিজ চত্বরে ‘সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি, সিলেট’ আয়োজিত ৪৯তম বিজয় দিবসের আলোচনায় সভায় তিনি প্রধান অতিথি’র বক্তব্য রাখছিলেন। সংগঠনের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ মোঃ মকন মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর খান ও অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ আব্দুস ছত্তারের যৌথ সঞ্চালনায় শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজম খান। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ সাইফুল আলম, আলহাজ্ব হাবিব হোসেন চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব মোঃ আমির উদ্দিন, সাংবাদিক চঞ্চল মাহমুদ ফুলর, সহ-সাধারণ সম্পাদক গোলাম হাদী ছয়ফুল, মোঃ আব্দুর রহিম, ছয়েফ খান, নজরুল হোসেন, লাহিন আহমদ রুহেল, আব্দুল হাই আজাদ বাবলা, এমএইচ নিজাম, শাহ একলাছ মিয়া, সেলিম আহমদ শেমিম, খন্দকার মহসিন কামরান, পংকী মিয়া জালালী, জুনেদ আহমদ, শামীম আহমদ, হাফিজুর রহমান মুক্তা, নিজাম উদ্দিন, হারুন-অর-রশীদ প্রমুখ। পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন আব্বাস উদ্দিন জ্বালালী।
দ্বিতীয় অধিবেশনে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে দেশাত্ববোধক, লোকগীতি ও পল্লীগান পরিবেশন করেন কণ্ঠশিল্পী এমএস মানিক, ফকির আমির আলী, বাউল রেখা বেগম, এমএইচ নিজাম, শাহানা আক্তার, সানজিদা আক্তার সুইটি, শাকিলা আক্তার, সজীব আহমদ, প্রবাসী নুরুল ও শিশুশিল্পী আরমান আহমদ রাব্বি। তাদের যন্ত্রে সহযোগিতা করেন শেখ মোঃ হিরা মিয়া, আব্বাস উদাসী, আনহার মিয়া ও সামাদ মিয়া।-বিজ্ঞপ্তি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •