Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/meta.php on line 1

Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/pomo/streams.php on line 1

Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/cache.php on line 1

Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/user.php on line 1

Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/widgets.php on line 1

Warning: trim() expects parameter 1 to be string, array given in /home/sylhetsu/public_html/wp-includes/rest-api/endpoints/class-wp-rest-menus-controller.php on line 1
প্রবাসী ছেলের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় পিতার জিডি – Daily Sylhet Surma
  • ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ , ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৩ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

প্রবাসী ছেলের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় পিতার জিডি

sylhetsurma.com
প্রকাশিত নভেম্বর ৯, ২০২১
প্রবাসী ছেলের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় পিতার জিডি

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি: প্রবাসী সন্তানের নিরাপত্তা চেয়ে জিডি করেছেন গোলাপগঞ্জের বাগলা মাইজগ্রাম গ্রামের মো: আমরিছ আলী। গতকাল গোলাপগঞ্জ থানায় তিনি এই জিডি দায়ের করেন।
জিডি সূত্রে জানা যায়, মো: আমরিছ আলীর প্রবাসী পুত্র আব্দুল মুমিন নারী ও শিশু নির্যাতন মামলার পলাতক আসামী। মামলার বাদী হচ্ছেন আব্দুল মুমিনের চাচাতো বোন শিল্পী বেগম। জিডিতে অভিযোগ করা হয় আব্দুল মুমিনের সম্পত্তি হাতিয়ে নেয়ার জন্য শিল্পি বেগম মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এই মিথ্যে মামলা প্রত্যাহারের জন্য গত ৫ নভেম্বর আমরিছ আলী এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় মেম্বারকে নিয়ে এক সালিশ বৈঠকে বসেন। বৈঠকে শিল্পী বেগমও উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে সালিশানগন শিল্পী বেগমকে মামলা প্রত্যাহারের অনুরোধ করলে তিনি তা প্রত্যাখ্যান করে বলেন, আব্দুল মুমিনের পরিবারের সাথে তাদের জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ মেটাতে হবে। আব্দুল মুমিনের পিতা আমরিছ মিয়া তার বসতবাড়ি শিল্পী বেগমের নামে দলিল করে দিতে হবে। নয়তো তিনি মামলা প্রত্যাহার করবেন না। আমরিছ আলী এর প্রতিবাদ করলে শিল্পী বেগম উত্তেজিত হয়ে শালিসান বৈঠকে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। ধামকি দিয়ে বলেন, সাহস থাকলে ছেলেকে দেশে এনে তার মোকাবেলা করতে। পরে তিনি আব্দুল মুমিনকে প্রাণে হত্যার হুমকি প্রদান করে বৈঠক থেকে চলে যান। এতে হতাশ হয়ে পড়েন আমরিছ আলী। এমন নিরাপত্তাহীনতায় ছেলের জীবন নিয়ে শংকায় দিন কাটাচ্ছেন তিনি। তিনি জিডিতে অভিযোগ করেন, তার ছেলে আব্দুল মুমিনের জীবননাশ করতে শিল্পী বেগম যে কোন উদ্যোগ নিতে পারেন। এমতাবস্থায় থানায় জিডি এন্ট্রি দায়ের করলেও পুলিশ শিল্পী বেগমকে প্রতিরোধের কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেন তিনি।