মাধবপুরে এক ঘাতক কেড়ে নিলো তিনজনের প্রাণ : গুরুতর আহত ১

প্রকাশিত: ১১:৫৪ অপরাহ্ন, এপ্রিল ৪, ২০১৬

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জের মাধবপুরের ধর্মগড় ইউনিয়নের বীরসিংহ গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে আপন ভাইয়ের স্ত্রী, ভাতিজি ও প্রতিবেশ এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে তাহের উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি।  নিহতরা হলেন জাহানারা বেগম (৪০), তার মেয়ে শারমিন বেগম (২৫) ও তার প্রতিবেশি আব্দুল আলিমের পুত্র শিমুল মিয়া (২৫)। এই ঘটনায় স্কুল পড়ুয়া এক কিশোর গুরুতর আহত অবস্থা চিকিৎসাধীন আছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায় সোমবার (২৩ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে তাহের উদ্দিন তার আপন বড় ভাই সৌদি প্রবাসী গিয়াস উদ্দিনের ঘরে ঢুকে তার স্ত্রী জাহানারা বেগমের সাথে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে থাকে। এ সময় পাশের বাড়িতে থেকে জাহানারাকে বাঁচাতে শিমুল মিয়া এগিয়ে এলে তার উপরও হামলা চালায়। এলোপাতাড়ি হামলা থেকে রক্ষা পায়নি জাহানারার মেয়ে শারমিন ও কিশোর ছেলে সুজাতও। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জাহানারা, শারমিন ও শিমুলের মৃত্যু হয়  আর আহত হয় সুজাত। খবর পেয়ে কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ফখরুজ্জামান ফোর্স নিয়ে এসে হামলাকারী তাহেরকে গ্রামবাসীর সহায়তায় আটক করে।
মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুক্তাদির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, “হত্যাকারী তাহেরকে আটক করা হয়েছে”। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে জমি নিয়ে তাহের ও গিয়াস দুই ভাইয়ের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গিয়াস বর্তমানে সৌদি আরবে রয়েছেন। গিয়াসের আরেক ছেলে জার্মানিতে থাকেন। তাহের উদ্দিন কিছুদিন আগে ইরাক থেকে ফেরার কথা জানায়। তবে তার ইরাকে যাওয়ার ব্যাপারে এলাকাবাসীর সংশয় রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •