জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ব্যবসায়ীদের উপযুক্ত সেবা ও সম্মান দিতে চায়

প্রকাশিত: ৪:৪৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ব্যবসায়ীদের বন্ধু, পার্টনার হিসেবে পাশে থেকে উপযুক্ত সেবা ও সম্মান দিতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান।তিনি বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। এ জোয়ারের মূলে রয়েছেন ব্যবসায়ীবৃন্দ, যারা ভ্যাট, ট্যাক্স দিয়ে সরকারের কোষাগারকে সমৃদ্ধ করছেন। বর্তমান সরকার উন্নয়নের যে রূপরেখা তৈরি করেছেন তা বাস্তবায়ন করতে সকলকে স্বপ্রণোদিত রাজস্ব আদায় করতে হবে।

শনিবার (১২ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টায় চেম্বার কনফারেন্স হলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ভ্যাট অনলাইন প্রজেক্ট এর আওতায় এবং দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ও কাস্টমস, এক্সাইজ এন্ড কমিশনারেট, সিলেট এর যৌথ উদ্যোগে ভ্যাট অনলাইন বিষয়ক ২ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. নজিবুর রহমান এ কথাগুলো বলেন।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি সালাহ্ উদ্দিন আলী আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (কর তথ্য ব্যবস্থাপনা ও সেবা) শ্রী কালিপদ হালদার, সদস্য (মূসক নীতি) ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন, সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মো. আব্দুর রাজ্জাক, সদস্য (কর নীতি) পারভেজ ইকবাল, সদস্য (শুল্ক ও ভ্যাট প্রশাসন) ও ভ্যাট অনলাইন প্রজেক্ট এর প্রকল্প পরিচালক মো. রেজাউল হাসান, মহাপরিচালক (সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স সেল) মো. বেলাল উদ্দিন, কাস্টমস এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট এর কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম, কর অঞ্চল-সিলেট এর কর কমিশনার মোহাম্মদ আবু দাউদ ও সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (শুল্ক ও ভ্যাট প্রশাসন) ও ভ্যাট অনলাইন প্রজেক্ট এর প্রকল্প পরিচালক মো. রেজাউল হাসান বলেন, ভ্যাট অনলাইন প্রজেক্ট ব্যবসায়ীদের কল্যাণার্থে চালু করা হয়েছে। এর ফলে ব্যবসায়ীগণ ভ্যাট অফিসে না গিয়ে ঘরে বসে অনলাইনে ই-পেমেন্ট এর মাধ্যমে নিজ নিজ ভ্যাট আদায় করতে পারবেন। এতে ব্যবসায়ীগণ অনেক ধরণের হয়রানীর হাত থেকে রেহাই পাবেন।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে একজন ব্যবসায়ীকে ভ্যাট আদায়ের জন্য অনেকগুলো কাগজ জমা দিতে হয়, কিন্তু এই প্রজেক্ট এর আওতায় একজন ব্যবসায়ী শুধুমাত্র নিজের ট্রেড লাইসেন্স নাম্বার প্রদান করে ভ্যাট পরিশোধ করতে পারবেন। এই কাজটি যে ব্যবসায়ীরা নিজেরাই করতে পারেন এজন্য ব্যবসায়ীদের মধ্য থেকে প্রশিক্ষক তৈরির জন্য ২ দিন ব্যাপী এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করা হয়েছে। তিনি জানান, এনবিআর এর ওয়েবসাইটে ‘ভ্যাট অনলাইন’ নামে একটি লিংক চালু করা হয়েছে, এই লিংক থেকে ব্যবসায়ীরা এ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ও সেবা পাবেন।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সভাপতি সালাহ্ উদ্দিন আলী আহমদ বলেন, ভ্যাট রাজস্ব আহরণের অন্যতম একটি প্রদান খাত। রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হলে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন বাঁধাগ্রস্ত হয়। অতীতে জনগণের মধ্যে ভ্যাট, ট্যাক্স প্রদানের ক্ষেত্রে এক ধরণের ভীতি ছিল। কিন্তু বর্তমানে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ এর কারণে এ ভীতি অনেকটা দূর হয়েছে। তিনি বলেন, সিলেটের ব্যবসায়ীরা ভ্যাট, ট্যাক্স প্রদানে আগ্রহী, যার প্রমাণ তারা ইতোপূর্বেও রেখেছেন। তিনি ভ্যাট আদায় প্রক্রিয়া সহজীকরণের লক্ষ্যে অনলাইন ভ্যাট কার্যক্রম চালুর জন্য এনবিআরকে ধন্যবাদ জানান।

সভায় বক্তাগণ রাজস্ব খাতে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ, ভ্যাট অনলাইন প্রজেক্ট এবং মূসক ও সম্পূরক শুল্ক আইন ২০১২ নিয়ে বিশদভাবে আলোচনা করেন। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (মূসক নীতি) ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন, সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মো. আব্দুর রাজ্জাক, কাস্টমস, এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট এর কমিশনার মো. শফিকুল ইসলাম, কর অঞ্চল-সিলেট এর কর কমিশনার মোহাম্মদ আবু দাউদ, সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, সিলেট চেম্বারের সহ-সভাপতি মাসুদ আহমদ চৌধুরী, পরিচালক ও ভ্যাট, বাজেট, শুল্ক, কর ও ট্যারিফ সাব কমিটির আহবায়ক খন্দকার সিপার আহমদ, সিলেট বিভাগ গণদাবী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর এম. শফিকুর রহমান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাস্টমস, এক্সাইজ এন্ড কমিশনারেট, সিলেট এর অতিরিক্ত কমিশনার মো. রাশেদুল আলম, অতিরিক্ত কর কমিশনার মো. তৌহিদুল ইসলাম, কাস্টমস ও ভ্যাট এর সহকারী কমিশনার সাজেদুল হক, মো. পায়েল পাশা, সিলেট চেম্বারের পরিচালক মো. হিজকিল গুলজার,  জিয়াউল হক, মো. সাহিদুর রহমান, মো. লায়েছ উদ্দিন, পিন্টু চক্রবর্তী, মো. ওয়াহিদুজ্জামান (ভূট্টো), মো. এমদাদ হোসেন, আমিরুজ্জামান চৌধুরী, মুকির হোসেন চৌধুরী, চন্দন সাহা, মো. বশিরুল হক, প্রাক্তন সভাপতি এম. এ. মুমিন, প্রাক্তন সিনিয়র সহ সভাপতি শাহ্ আলম, প্রাক্তন সহ সভাপতি জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, প্রাক্তন পরিচালক মো. কুদরত উল্লাহ্ ফাহের, সদস্য ফালাহ্ উদ্দিন আলী আহমদ, হানিফ মোহাম্মদ, কাস্টমস, ভ্যাট ও আয়কর বিভাগের কর্মকর্তা, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ চেম্বারের পরিচালক ও প্রতিনিধিবৃন্দ ও সিলেটের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ