পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম বেগবান করতে জনবল নিয়োগ দ্রুত সম্পন্নের নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ৬:৩১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২০, ২০১৮

সিলেট সুরমা ডেস্ক : সারাদেশে পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম আরো বেগবান করতে শূন্য পদে সাড়ে ৪ হাজার জনবল নিয়োগ পক্রিয়া স্বচ্ছতার সাথে দ্রুত সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।
আজ শনিবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ সংক্রান্ত এক সভায় সভাপতিত্বকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন।
তৃণমূল পর্যায়ে পরিবার কল্যাণ কর্মসূচিকে আরো কার্যকর ও শক্তিশালী করতে বিদ্যমান সমস্যাগুলো নিয়ে সভায় আলোচনা হয়।
এ ছাড়াও গ্রামে গ্রামে এবং শহরাঞ্চলের বস্তি এলাকায় জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে মাঠকর্মীদের আরো তৎপর হওয়ার জন্য মন্ত্রী তাগিদ দেন।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশকে লম্বা পথ পাড়ি দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতের অগ্রগতি এবং এমডিজি অর্জন বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রশংসা কুড়িয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এসডিজি অর্জনের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ টার্গেট পূরণ করবে।
তিনি দেশের মাতৃ ও শিশুমৃত্যুর হার কমানোর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য মাঠপর্যায়ের জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর উপর গুরুত্বারোপ করেন।
এ লক্ষ্যে মন্ত্রলায়ের উদ্যোগে গৃহীত স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করে গ্রামভিত্তিক উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রমে গতি বাড়াতে কর্মকর্তাদের পদোন্নতির জটিলতা ও মামলাগুলোর দ্রুত নিরসনে চিকিৎসা শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিবকে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন মোহাম্মদ নাসিম।
এসময় চিকিৎসা শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিব ফয়েজ আহম্মেদ, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী মোস্তফা সারওয়ারসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
পরে মোহাম্মদ নাসিম রাজধানীর ধানমন্ডিতে ল্যাব এইডে চিকিৎসাধীন নারায়ণগঞ্জের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীকে দেখতে যান। তিনি চিকিৎসকদের কাছে আইভীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নেন।
এ সময়ে বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, ল্যব এইড হাসপাতালের সিইও আল এমরান চৌধুরি, হাসপাতালের মেডিসিন ও কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. বরেণ চক্রবর্তী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
২০ জানুয়ারি, ২০১৮ (বাসস)

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ