আওয়ামী লীগের উন্নয়ন : নীরব ভোট বিপ্লবের আশা বিএনপির

প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৮

আওয়ামী লীগের উন্নয়ন : নীরব ভোট বিপ্লবের আশা বিএনপির

সিলেট সুরমা ডেস্ক : শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত নৌকার ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত মৌলভীবাজার-৪ আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণা তুঙ্গে। নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে প্রচারণার ঢেউ যেন তত উপচে পড়ছে।

কোন ধরনের বাধা নিষেধের সম্মুখীন না হয়ে প্রচারণা চালিয়ে গেছে আওয়ামী লীগ। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন তুলে ধরেছে ভোটারদের কাছে। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নই তাদের জয়ের প্রধান ভরসা।

অপরদিকে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই পুলিশি হয়রানি ও দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার ও ভয় দেখানোর অভিযোগ করে আসছে বিএনপি। তাদের প্রচার প্রচারণায় আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন বাধা দিয়েছে বারবার। সে কারণে আওয়ামী লীগের তুলনায় বিএনপির প্রচারণা অনেকাংশে কম দেখা গেচ্ছে। তবে প্রচারণা যাই হোক না কেন একটি নীরব ভোট বিপ্লবের আশায় বসে আছেন এই আসনের বিএনপি সমর্থকরা।

মৌলভীবাজার-৪ আসনের শ্রীমঙ্গল উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, এ আসনে শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ভোটারদের অধিকাংশই কোন না কোনভাবে নৌকার প্রচারণায় যুক্ত রয়েছেন। কেউ বা অনলাইনে, কেউ বা অফলাইনে। এছাড়া নতুন ভোটার এবং তরুণদের মধ্যে প্রচারণা নিয়ে প্রতিযোগিতা চলছে।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিদিন ৪-৫ টি সমাবেশে অংশ নিয়ে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরে নৌকায় ভোট চেয়েছেন এই আসনের সংসদ সদস্য প্রার্থী আব্দুস শহীদ।

আওয়ামী লীগ থেকে মনোননয়ন পাওয়ার আগ পর্যন্ত এই আসনের আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা আব্দুস শহীদের সাথে মতপার্থক্য ও বিরোধীতা করে আসলেও নৌকার মনোনোয়ন পাওয়ার পর থেকে বিরোধীরা নৌকার পক্ষে কাজ করার জন্য এক হয়ে গেছেন। আব্দুস শহীদকে সাথে নিয়ে মাঠে ব্যস্ত সময় পার করছেন বিরোধীরাও।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বলেন, গত দশ বছরে সারাদেশের মতো আমাদের উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি জনগণ সরকারের উন্নয়নের কথা চিন্তা করে ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারো নৌকায় ভোট দিবে।

এদিকে নির্বাচনী প্রচারণায় আওয়ামী লীগ থেকে অনেকাংশে পিছিয়ে বিএনপি। মাইকিং ও হাতেগোনা সভা সমাবেশের মধ্যে চলছে বিএনপির প্রচারণা। এই আসনে ঐক্যফ্রন্ট থেকে মহাজোটের সাথে মাঠে নেমেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মুজিবুর রহমান।

আওয়ামী লীগের মতো বিএনপির মধ্যেও ব্যাপক মতপার্থক্য ও কোন্দল থাকলেও ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত করতে বিএনপি কর্মীরা সকল কোন্দল ভুলে একত্রিত হয়ে মাঠে নেমেছেন। আওয়ামী লীগের মতো বড় সভা সমাবেশ না করতে পারলেও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন তারা।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী জানান, তফসিল ঘোষণার পর থেকেই আমাদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হয়েছে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য। আমাদের নির্বাচনী প্রচারণায় বারবার বাধা প্রদান করা হচ্ছে। তবে প্রচারণায় বাধা দিয়ে কোন লাভ হয় নি। জনগণ আমাদের পাশে ছিলো এবং আছে। ৩০ তারিখ একটি নীরব ভোট বিপ্লবের মধ্য দিয়ে বিএনপির জয় হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ