• ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৭ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

ছাত্রলীগ নেতাকে দেখতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় নিহত ৭

sylhetsurma.com
প্রকাশিত জানুয়ারি ২৩, ২০১৯
ছাত্রলীগ নেতাকে দেখতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় নিহত ৭

সিলেট সুরমা ডেস্ক : লক্ষ্মীপুরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক ছাত্রলীগ নেতাকে দেখতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় তার পরিবারের ছয় সদস্যসহ সাতজন নিহত হয়েছেন।

বুধবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে লক্ষ্মীপুর সদরের যাদৈয়া এলাকায় ঢাকা-রায়পুর আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক ও সিএনজি-চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

লক্ষ্মীপুর সদরের চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঘটনাস্থল থেকে সাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সাতটি লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

নিহতরা হলেন- চন্দ্রগঞ্জ বসুদুহিতা এলাকার ছাত্রলীগ নেতা নাদিম মাহমুদ অন্তরের বাবা শাহ আলম, মা নাসিমা আক্তার, অন্তরের নানী শামছুন্নাহার, খালা রোকেয়া ও তার ছেলে রুবেল, অন্তরের ৮ বছর বয়সী ভাই অমিত এবং অটোরিকশা চালক নূর হোসেন সোহাগ।

স্বজনরা জানান, ছাত্রলীগ কর্মী অন্তরকে মঙ্গলবার রাতে লক্ষ্মীপুরের সাদারঘর এলাকায় পিটিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা। রাতেই তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরিবারের সদস্যরা ভোরে একটি অটোরিকশা নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় পড়েন।

পুলিশ জানায়, ট্রাকটি ভোলা থেকে চট্টগ্রাম যাচ্ছিল। সিএনজি-চালিত অটোরিকশাটি চন্দ্রগঞ্জ থেকে লক্ষ্মীপুর যাচ্ছিল। ভোর সাড়ে ৫টার দিকে লক্ষ্মীপুর সদরের যাদৈয়া এলাকায় ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশাটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই সাতজন নিহত হন।

দুর্ঘটনার পর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে। তারা লাশগুলো উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাক ও অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়েছে।