নগরীর আখালিয়া রাস্তার বেহাল দশা : জনদুর্ভোগ চরমে

প্রকাশিত: 9:26 PM, October 31, 2016

স্টাফ রিপোর্টার
সিলেট নগরীর আখালিয়া থেকে নয়া বাজার পর্যন্ত রাস্তার বেহাল অবস্থা। অর্ধশত রাস্তার পীচ উঠে গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় এগুলো জনসাধারণের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে পুনঃনির্মাণ কিংবা সংস্কার না করায় এসকল সড়ক এখন নগরবাসীর দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সাময়িক সংস্কার হলেও কিছু দিন পর সড়কগুলো আগের অবস্থায় ফিরে আসে। নগরীর বেশ কিছু সড়কে এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বড় বড় গর্ত ও খানা-খন্দক সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন চলাচলে মারাত্মক অসুবিধা এবং মেরামতের অভাবে আখালিয়া থেকে জোড়পুকুর হয়ে নয়া বাজার পর্যন্ত প্রায় কয়েক কিলোমিটার রাস্তার বিভিন্ন স্থানে খানা খন্দের কারণে সাধারণ মানুষ ও স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের চলাচলে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে ভেঙে ছোটখাট কুয়ায় পরিণত হয়েছে সড়কটির বেশ কয়েকটি অংশ। ফলে এর বেশ কিছু অংশই এখন চলাচলের উপযোগী নয়। সড়কটি এখন যেন মরণফাঁদ। রাস্তার অনেক জায়গায় কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-খাটো গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহনগুলোকে হেলেদুলে চলতে হচ্ছে। এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন প্রায় হাজার হাজার রিকশা, ট্রাক, প্রাইভেট কার, সিএনজি, টেম্পু, মোটরসাইকেল, অটোরিকশা, ভ্যান, সাইকেল, দুটি স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যবরীত গাড়ীসহ বিভিন্ন কোম্পানীর মালবাহী গাড়িসহ অফিসিয়াল যানবাহন চলাচল করে। রাস্তা ভাঙ্গার কারণে প্রায় প্রতিদিনই লোকজন বিভিন্ন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। বিকল্প সড়ক না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা সহ বিভিন্ন স্থান থেকে আগত যাত্রীরা চলাচল করছেন। সিটি কর্পোরেশনের প থেকে মাঝে মধ্যে ইট-বালু-পাথর দিয়ে মেরামত করা হলেও কিছুদিন পর আবার পূর্বের অবস্থার সৃষ্টি হয়। অতিদ্রুত রাস্তাটি পুনঃর্নিমাণ বা সংস্কার করার দাবি এলাকাবাসীর ও স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের। সরেজমিন দেখা গেছে, সিলেট সুনামগঞ্জ সড়ক’র শুরু থেকে আখালিয়া থেকে নায়া বাজার পর্যন্ত বিশেষ করে আখালিয়া বিজিবি স্কুলে এলাকার রাস্তায় বেশ কয়েকটি বড় বড় গর্ত হয়ে পুকুরে রূপ নিয়েছে। আখালিয়া নোয়াপাড়া এলাকার মোর্শেদ আলী বলেন, রাস্তায় একটু বৃষ্টি হলেই হাটু পরিমান পানি জমে। এছাড়া ডে”ন ব্যবহার না থাকায় ব”ষ্টির পানিতে জমে এখানে বড় বড় গর্ত হয়ে গেছে। প্রতিদিন হাজার হাজার গাড়ি চলাচল করে এ রাস্তা দিয়ে। প্রতিদিন গাড়ি নষ্ট হয় ও যাত্রী আহত হয়। এ সড়কের গর্তগুলোতে গড়ে প্রতিদিনই পাঁচ-দশটি দুর্ঘটনা ঘটছে। গত এক সপ্তাহে কম হলেও অর্ধশত গাড়ি গর্তে পড়েছে। যার ফলে স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা আহত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সিটি কর্পোরেশন কয়দিন পরপর মেরামত করে, এক দুই সপ্তাহ পর আবার নষ্ট হয়ে যায়। রাস্তাটির বেহাল অবস্থার কারণে আশে পাশের ব্যবসা বাণিজ্য অচলাবস্থা। এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারি স্থানীয় ব্যবসায়ী মকদ্দুশ আলী বলেন, প্রতিদিন স্কুল কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াত নিরাপত্তা চরমভাবে উপেক্ষিত। বিশেষ করে ছোট ছোট বা”চাদেরকে স্কুলে দেওয়া নেওয়ার মধ্যে যে কোন সময় বিপদ হতে পারে এই আশংকায় অনেক মাস ধরে জীবন যাপনের স্বাচ্ছন্দ বিঘিœত হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা আফিজ আলী জানান, রিকশা-সিএনজিসহ ছোটখাটো গাড়িগুলো গর্তে পড়ে গিয়ে উল্টে যায়। অনেককেই আহত হয়ে চিকিৎসাও নিতে হয়েছে। গর্তে পড়ে পথচারীদরেকে কাদাঁপানিতে মিশে একাকার হতে হচ্ছে প্রতিদিনই। তিনি আরও বলেন, শুধু সিটির ভিতরেই আখালিয়া এলাকায় নয়, ৮নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানের একই অবস্থা। সামান্য বৃষ্টিতেই এসব রাস্তায় তৈরি হয়েছে ছোটখাটো গর্ত। বর্ষার পানি আর গাড়ির চাকার ঘর্ষণে এসব গর্ত সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণেই সড়কের কোথাও কোথাও কার্পেটিং, বিটুমিন, পাথর ও ইট ওঠে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। কিছু কিছু জায়গায় বিটুমিনের পরিবর্তে সড়ক মেরামত করা হয়েছে শুধু ইট আর পাথর দিয়ে। ফলে পথচারীদের চলাচলে দুর্ভোগ বেড়েছে আরো বহুগুণ। বৃষ্টির পরও শিত মৌসুম এসব সড়কের অবস্থা দিন দিন আরো ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। ভুক্তভোগী নগরবাসী সড়কগুলো দ্রুত সংস্কারের দাবী জানিয়েছেন। সিলেট সিটি কর্পোরেশন ও সড়ক জনপথ বিভাগের রশি টানাটানিতেও অনেক রাস্তাার উন্নয়ন ও সংস্কার হচ্ছে না। সড়ক ও জনপথ বিভাগের অনেক রাস্তা নগরীর ভেতর দিয়ে গেলেও সওজ এ সড়কগুলো সংস্কার ও রণাবেনে মনোযোগী নয়। অন্যদিকে সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত না থাকায় নগরীর অনেকগুলো প্রধান সড়ক সংস্কার করেনা সিসিক। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হয় জনসাধারণকে।
৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল মো. ইলিয়াছুর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সড়কটি মেরামতের তালিকাভুক্ত রয়েছে। টেন্ডার দেয়া হয়েছে, তিনি আরও বলেন, আগামী ১০ তারিখে আমাদের অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত সিলেটে আসছেন। ঐ রাস্তা জন্য বিশেষ ভাবে আলোচনার মাধ্যমে সড়কটি মেরামতের জন্য বিশেষ বরাদ্দ আকারের রাস্তার সংস্কারের দাবী তোলে ধরে শীঘ্রই সমাধানে জন্য চেষ্টা করা হবে। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান বলেন, সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্গত রাস্তাগুলোর অবস্থা ভাল। দু’একটা রাস্তা খারাপ রয়েছে সেগুলো সংস্কারে শীঘ্রই টেন্ডার আহ্বান করা হবে। নগরীর অবশিষ্ট ভাঙাচোরা রাস্তাগুলো সড়ক ও জনপথ বিভাগের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় সেগুলো সংস্কার হচ্ছেনা বলে তিনি মন্তব্য করেন। তবে আখালিয়া নবাববী সড়কও সিটি কর্পোরেশনের অধীনে আসতে অতিশীঘ্রই রাস্তার সংস্কার এর কাজ শুরু হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ