‘জঙ্গি আস্তানার’ আশপাশ থেকে স্থানীয়দের নিরাপদে রাখতে পুলিশের মাইকিং

প্রকাশিত: ৪:৪৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৯, ২০১৭

সিলেট সুরমা ডেস্ক : মৌলভীবাজারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ঘিরে দুই ‘জঙ্গি আস্তানার’ আশপাশ থেকে স্থানীয় লোকদের নিরাপদ দূরত্বে থাকতে মাইকিং চলছে। বুধবার (২৯ মার্চ) দুপুর থেকে এ মাইকিং করা হচ্ছে।
মঙ্গলবার গভীর রাত থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি এবং খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামের একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ইউনিটের (সিটিটিসি) সদস্যরা। দুটি স্থানের মধ্যে দূরত্ব প্রায় ২০ কিলোমিটার।
বুধবার (২৯ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে দু’টি জঙ্গি আস্তানায় বিস্ফোরণ ও গুলির শব্দ শোনা যায়। সাড়ে ১০টার দিকে বড়হাটের ‍আস্তানার ভেতরে বিকট শব্দে তিনটি গ্রেনেড বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা।
অভিযানে অংশ নিতে ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়েছে বিশেষ বাহিনী সোয়াত। প্রয়োজনে সেনাবাহিনী অভিযানে নামবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
এদিকে, বুধবার দুপুর থেকে দুই ঘটনাস্থলের আশপাশে ১৪৪ ধারা জারি করে করেছে প্রশাসন। নিরাপত্তাজনিত কারণে আশপাশে যেতে দেয়া হচ্ছে না সাংবাদিক ও উৎসুক জনতাকে।
মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রওশনুজ্জামান সিদ্দিকী বলেছেন, দুই বাড়ির ভেতরে মোট ১১ জন জঙ্গি অবস্থান করছে। তাদের জীবিত আটকের সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।
দুই বাড়িই প্রাণ-আরএফএল কোম্পানির কর্মকর্তা পরিচয়ে ভাড়া দুই ভিন্ন ব্যক্তি ভাড়া নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন বাড়ি দু’টির তত্ত্বাবধায়ক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ