‘প্রতারক’ মনি এক দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: ৭:৩৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

‘প্রতারক’ মনি এক দিনের রিমান্ডে

সিলেট সুরমা ডেস্ক : হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেপ্তারকৃত ফরজুন আক্তার মনির এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিনা আক্তার এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আদালত পরিদর্শক আল আমিন রিমান্ড মঞ্জুরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সমীর দাশ ফরজুন আক্তার মনির বিরুদ্ধে ৫দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। এর আগে এ বিষয়ে দীর্ঘ শুনানি হলে রাষ্ট্র পক্ষ তদন্তকারী কর্মকর্তার উপস্থিতি শুনানির জন্য বললে আদালত তদন্তকারী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার শুনানির তারিখ ধার্য করেন। বৃহস্পতিবার দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট শাহ ফখরুজ্জামান, অ্যাডভোকেট বদরু মিয়া ও তাজ উদ্দিন সুফিসহ ৭/৮জন আইনজীবী। আসামী পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আব্দুল মালেক হৃদয় ও অ্যাডভোকেট আবুল ফজল।

প্রসঙ্গত, নবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সিনিয়র সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ফেসবুকে মানহানিকর মিথ্যা স্ট্যাটাস এবং বিভিন্ন ভুয়া একাউন্ট খোলে প্রতারণার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা ও তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় হয় মনির নামে। এই মামলায় ফরজুন আক্তার মনিকে গত ২২ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই নারী দীর্ঘদিন যাবত নিজেকে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজনের সাথে প্রতারণা করে আসছিল বলে অভিযোগ উঠে। তার টার্গেট ছিল- নারী জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন দপ্তরের নারী কর্মকর্তা ও স্কুল-কলেজের ছাত্রী। প্রতি রাতেই নারীদের বিভিন্ন অশালীন ম্যাসেজ দিতেন মনি। এসব ম্যাসেজের স্ক্রিনশট প্রকাশ হওয়ায় মনি নারী না পুরুষ এনিয়েও প্রশ্ন উঠে। মনির এই প্রতারণার ফাঁদে পড়ে কেউ প্রতিবাদ করলেই মনি তার ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন রকম হুমকিমূলক ও মানহানিকর স্ট্যাটাস পোস্ট দিয়ে অপদস্থ করতন।

আরও অভিযোগ রয়েছে বহু রূপের অধিকারী মনি বিশেষ করে নিজেকে সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার আত্মীয় এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের মেয়ে আবার অনেককে ভাতিজি পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করতেন। কিছুদিন পূর্বে একাধিক মানহানিকর স্ট্যাটাস দিলে সাংবাদিক এম এ আহমদ আজাদ বাদী হয়ে পুলিশ ডিজিটাল নিরাপত্তা ও তথ্য প্রযুক্তি আইনে অভিযোগ দায়ের করেন।

নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন জানান, মনিকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিভিন্ন ভুয়া আইডি ও প্রতারণার তথ্য উৎঘাটন সম্ভব হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ