এ যেনো সাংবাদিকদের বিশ্বকাপ

প্রকাশিত: 11:17 PM, August 25, 2016

 
66কারও চেহারায় বয়সের ছাপ, কেউবা নতুনের কেতন উড়িয়ে মাত্রই শুরু করেছেন। কাজের মধ্যে ডুবে থাকাই তাদের কাজ। মাঠ-পথে-প্রান্তরে ঘুরে বেড়ান নেশা আর পেশার টানে। অনুসন্ধিৎসু চোখ আর শৈল্পিক হাতের ছোঁয়ায় তাঁরা তুলে আনেন সমাজের অলো আঁধারির চিত্র। মাঠের সৈনিকরা মাঠেই আছেন, ধরনটাই বদলেছে শুধু। হাতের বদলে চলছে পা শানাইয়ের কাজ! সংবাদের পেছনে ছুটা মানুষগুলো এখন ফুটবলের পেছনে ছুটছেন। দুনিয়া মাত করা গোলকটার প্রেমে ভালোই ডুব দিয়েছেন সিলেটের সাংবাদিকরা। মনের আনন্দে, দৃঢ় প্রত্যয়ে নিজেদের তৈরি করার পর এখন শুধু ময়দানি লড়াইয়ের অপেক্ষা। যেখানে জয়-পরাজয় থাকবে, থাকবে আবেগে ভেসে যাওয়ার খেলা। তবে সবকিছু ছাপিয়ে আজ থেকে শুরু হওয়া মাহা-ইমজা মিডিয়া কাপ ফুটবল একটা বার্তাই হয়তো পৌঁছে দেবে সবখানে সিলেটের সাংবাদিকরা ক্রীড়া নৈপুণ্যেও কম যাননা। ক্রিকেটে সেটা প্রমাণিত হওয়ার পর এবার ফুটবলেও দেখিয়ে দেওয়ার পালা। এই কিছুদিন টুর্নামেন্ট নিয়ে যা হয়েছে তাতে সাংবাদিকদের বিশ্বকাপই বলা যায়। বিশ্বকাপ নয়তো কি? খেলোয়াড়দের সাথে দলগুলোর চুক্তি সই, লোগো আর জার্সি উন্মোচন, সমন্বয় সভা, পেশাদার কোচের অধীনে কঠোর অনুশীলন চারদিকে বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ হাওয়া। এই হাওয়ায় সাংবাদিকদের সামনে শুধু ফুটবলই বয়ে চলে। আর তাতে নি:শ্বাস নিতে নিতে বলা যায় মিডিয়া কাপ ফুটবলের দিকে চেয়েও যদি বদলায় সিলেটের ফুটবলের চিত্র। তাহলেই স্বার্থক মাহা আর ইমজা। একপেশে জীবন সাংবাদিকদের। রানারের মতো ছুটতে হয় সংবাদের পেছনে। যা একটু অবসর মেলে তাতেও থাকতে হয় আতঙ্কে। কখন জানি বেজে উঠে মোবাইলের রিংটোন। তাই বিনোদনের ছোঁয়া পেতে ব্যাকুল তারা। ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন (ইমজা) অবশেষে এগিয়ে এসেছে সেই বিনোদনের ব্যবস্থা করে দিতে। সফল ক্রিকেট আয়োজনের পর হাত দিয়েছে ফুটবলে। আর তাদের এই ভালো উদ্যোগে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে স্বনামধন্য ফ্যাশন হাউস মাহা। মাহা-ইমজা মিলে একটা ইতিহাসই গড়তে যাচ্ছে সিলেটের মিডিয়া অঙ্গনে। প্রথমবারের মতো আয়োজিত মিডিয়া কাপ ফুটবলে অংশ নিচ্ছে ৮টি দল। আজ উদ্বোধনী ম্যাচে বিকেল ৪টায় চ্যানেল এস খেলবে দৈনিক সংবাদের বিপক্ষে। বিকেল ৩টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠবে জাকজমক এই টুর্নামেন্টের। টুর্নামেন্টের সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে আটটি দল অংশ নিচ্ছে। গ্রুপ এ’তে আছে চ্যানেল এস, দৈনিক সংবাদ, এসএ টিভি ও দৈনিক উত্তরপূর্ব। গ্রুপ বি’তে রয়েছে যমুনা টেলিভিশন, দৈনিক সবুজ সিলেট, দৈনিক শ্যামল সিলেট ও দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন। দুই গ্রুপের শীর্ষ দুই দল খেলবে সেমিফাইনালে। গতকাল আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে টুর্নামেন্ট কমিটি। সেখানে লিখিত বক্তব্যে তুলে ধরা হয় টুর্নামেন্টের রূপরেখা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ